চুয়েট-কুয়েট-রুয়েটে ভর্তির আবেদন শেষ হচ্ছে আগামীকাল

ঢাকা, রোববার   ১৩ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ৩১ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

চুয়েট-কুয়েট-রুয়েটে ভর্তির আবেদন শেষ হচ্ছে আগামীকাল

চুয়েট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৬ ৭ মে ২০২১   আপডেট: ১৪:১৭ ৮ মে ২০২১

শনিবার (২৪ এপ্রিল) থেকে শুরু হওয়া ভর্তি পরীক্ষার আবেদন এদিন বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। ভর্তি পরীক্ষা হবে ১২ জুন। 

শনিবার (২৪ এপ্রিল) থেকে শুরু হওয়া ভর্তি পরীক্ষার আবেদন এদিন বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। ভর্তি পরীক্ষা হবে ১২ জুন। 

গুচ্ছ পদ্ধতিতে দেশের তিন প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামীকাল ৮ মে (শনিবার)। এরআগে শনিবার (২৪ এপ্রিল) থেকে শুরু হওয়া ভর্তি পরীক্ষার আবেদন এদিন বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। ভর্তি পরীক্ষা হবে ১২ জুন। 

এসব বিশ্ববিদ্যালয়ে তালিকায় রয়েছে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট), খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (রুয়েট)।

যেভাবে আবেদন করা যাবে: আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে পাঁচ ধাপে। প্রথমে (https://www.admissionckruet.ac.bd/) ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে নির্দেশনা অনুযায়ী ফরম পূরণ করে ধার্যকৃত ‘ফি’ দিয়ে আবেদনপত্র সাবমিট করতে হবে। সেখানে বিভিন্ন তথ্য সঠিকভাবে দিতে হবে।   

মানবন্টন: এবার ‘ক’ গ্রুপে প্রকৌশল বিভাগসহ, নগর ও পরিকল্পনা বিভাগ এমসিকিউ পদ্ধতিতে ৫০০ নাম্বারে পরীক্ষা হবে। ‘খ’ গ্রুপে প্রকৌশলের পাশাপাশি স্থাপত্য বিভাগে ৭০০ নাম্বারের পরীক্ষা হবে। 

‘ক’ গ্রুপে গণিতে (উচ্চতর) ১৫ প্রশ্নে ১৫০ নাম্বার পদার্থবিজ্ঞানে ১৫ প্রশ্নে ১৫০, রসায়নে ১৫ প্রশ্নে ১৫০, ইংরেজিতে ৫ প্রশ্নে ৫০ নাম্বারে মোট ৫০০ নাম্বারে পরীক্ষা হবে। ‘খ’ গ্রুপে গণিতে (উচ্চতর) ১৫ প্রশ্নে ১৫০ নাম্বার, পদার্থবিজ্ঞানে ১৫ প্রশ্নে ১৫০, রসায়নে ১৫ প্রশ্নে  ১৫০, ইংরেজিতে ৫ প্রশ্নে ৫০ নাম্বার, মুক্তহস্ত অংকনে ২০০ নাম্বারসহ মোট ৭০০ নাম্বারে পরীক্ষা হবে।

প্রয়োজন ৩০ হাজার পরীক্ষার্থী: এবার আবেদনকারীদের মধ্য থেকে পরীক্ষার জন্য যোগ্য হিসেবে নেয়া হবে ৩০ হাজার প্রার্থীকে। আবেদনের যোগ্যতা হিসেবে ২০১৭ অথবা ২০১৮ সালে মাধ্যমিক কিংবা সমমানে সর্বনিম্ন জিপিএ ৪.০০ এবং উচ্চ মাধ্যমিকে উচ্চতর গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজিতে আলাদা আলাদাভাবে জিপিএ ৫.০০ নিয়ে মোট গ্রেড ২০.০০ থাকতে হবে।

আবেদন ফি ও আসন সংখ্যা: ‘ক’ গ্রুপে আবেদন ফি ৯০০ টাকা, ‘খ’ গ্রুপে আবেদন ফি ১০০০ টাকা। চুয়েটে আসন ৮৯০টি ও সংরক্ষিত ১১টি, কুয়েটে আসন সংখ্যা ১০৬০টি ও সংরক্ষিত ৫টি এবং  রুয়েটে আসন ১২৩০ টি ও সংরক্ষিত ৫টি আসন।

আগামীকাল শনিবার (৮ মে) অনলাইনে আবেদন শেষ হওয়ার পর ২ জুন ভর্তি পরীক্ষায় যোগ্য প্রার্থীদের নামসহ কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ করা হবে। এরপর ১২ জুন ‘ক’ ও ‘খ’ গ্রুপে এ ভর্তি পরীক্ষা হবে। আগামী ৩০ জুন ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদনের যোগ্যতা ও অন্য শর্তাবলি এ ওয়েবসাইট থেকে জানতে পারবেন শিক্ষার্থীরা।

৩ হাজার ২০১টি আসনের জন্য যোগ্য আবেদনকারীর মধ্য থেকে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় গণিত, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন ও ইংরেজি বিষয়ের মোট নম্বরের ভিত্তিতে শীর্ষ ৩০ হাজার জনকে পরীক্ষায় অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হবে। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য যোগ্য শিক্ষার্থীদের তালিকা আগামী ২ জুন প্রকাশ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম