অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত ঢাবির

ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৫ জুন ২০২১,   আষাঢ় ২ ১৪২৮,   ০৩ জ্বিলকদ ১৪৪২

অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত ঢাবির

ঢাবি প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৫৫ ৫ মে ২০২১   আপডেট: ২০:৫৮ ৫ মে ২০২১

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হল

অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। তবে করোনার পরিস্থিতির উন্নতি না হলে তখনই অনলাইনে সেমিস্টার বা ইয়ার ফাইনাল পরীক্ষা নেয়া হবে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল জানান, আগামী জুলাই মাস থেকে অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বিষয়টি চূড়ান্ত করা হবে। 

বুধবার দুপুরে অনলাইনে পরীক্ষা আয়োজনের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। বৈঠক বিকেল তিনটায় শুরু হয়ে প্রায় দুই ঘণ্টা চলার পর এ সিদ্ধান্তে আসে ডিনস কমিটি। 

দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরুর পর গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে ছুটি ঘোষণা করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় আবাসিক হলসহ ক্যাম্পাস অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। 

বৈঠকে বন্ধ থাকা শিক্ষা কার্যক্রম দ্রুত সময়ের মধ্যে স্বাভাবিক করে শিক্ষার্থীদের সেশনজট থেকে মুক্ত রাখতে বিশদভাবে আলোচনা হয়। এরইমধ্যে অনলাইনে দুই সেমিস্টারের ক্লাস, মিডটার্ম পরীক্ষা, অ্যাসাইনমেন্ট/ টার্ম পেপার জমা নেয়া হলেও আটকে আছে সব বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা। 

অধ্যাপক মাকসুদ কামাল ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন, ডিনস কমিটির সভায় অনলাইনে পরীক্ষা নেয়ার জন্য প্রত্যেক অনুষদের ডিনকে স্ব স্ব অনুষদের প্রয়োজন অনুসারে নীতিমালা তৈরি করতে বলা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি না হলে জুলাইয়ের শুরু থেকেই আমরা অনলাইনে পরীক্ষা নেব। অনলাইন পরীক্ষার গ্রহণযোগ্যতা ও পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণ কীভাবে নিশ্চিত করা যায়, তা সুনির্দিষ্ট করতে অনুষদগুলোর ডিন ও ইনস্টিটিউটগুলোর পরিচালকদের একটি কৌশলপত্র তৈরির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে৷ দুই সপ্তাহের মধ্যে এই কৌশলপত্র জমা দিতে বলা হয়েছে৷ পাশাপাশি অনলাইন পরীক্ষার দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে শিক্ষকদেরও প্রশিক্ষণ দেয়া হবে৷ পরীক্ষায় অংশ নিতে শিক্ষার্থীরা অনলাইনেই ফরম পূরণ করতে পারবেন বলে জানান তিনি। 

অনলাইন পরীক্ষার সময় কতটুকু হবে সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি অনুষদের ডিন অধ্যাপক হাসানুজ্জামান বলেন, জুলাই মাসের মধ্যে যদি সশরীরে পরীক্ষা নেয়ার মতো পরিস্থিতি তৈরি না হয় তাহলে অনলাইনে পরীক্ষা নেয়া হবে। সেক্ষেত্রে তিন ঘণ্টার পরীক্ষা এক ঘণ্টা বা দেড় ঘণ্টায় নেয়া হবে। অনলাইনে পরীক্ষার পদ্ধতির বিষয়ে স্ব-স্ব বিভাগকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। 

এর আগে গত ২৯ এপ্রিল করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ১৭ মে আবাসিক হল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রভোস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটি। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, শিক্ষার্থীদের করোনার টিকা নিশ্চিত হওয়ার আগ পর্যন্ত হল বন্ধই থাকছে। টিকা নিশ্চিত হওয়ার অন্তত চার সপ্তাহ পর হলে তোলা হবে শিক্ষার্থীদের।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম