সেমিস্টার ও সেশনের সময় কমানোর পরিকল্পনা ঢাবির

ঢাকা, রোববার   ০৯ মে ২০২১,   বৈশাখ ২৬ ১৪২৮,   ২৬ রমজান ১৪৪২

সেমিস্টার ও সেশনের সময় কমানোর পরিকল্পনা ঢাবির

ঢাবি প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৩৬ ২১ এপ্রিল ২০২১   আপডেট: ০২:৫১ ২২ এপ্রিল ২০২১

কার্জন হল (ফাইল ছবি)

কার্জন হল (ফাইল ছবি)

সেশনজট কাটাতে সময় কমানোর পরিকল্পনা করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ পরিকল্পনায় আছে ছয় মাসের পরিবর্তে চার মাসের সেমিস্টার এবং এক বছরের সেশন আট মাস। 

বিশ্ববিদ্যালয় এমন পরিকল্পনার কথা জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের নীতিনির্ধারকরা। এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে শিক্ষার্থীরা। 

তারা বলছেন, করোনা মহামারির কারণে সম্যায় কাটছে সময়। কারো ডিভাইস বা নেটওয়ার্ক সমস্যা বা কেউ আবার অনলাইন ক্লাসে নিয়মিত থাকছেন না। কেউ কেউ অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে নিজেকে সমৃদ্ধ করতে পারছে না। এক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন যদি করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর সেশনের সময়কাল ও সেমিস্টার বা সেশনের সিলেবাস কমিয়ে সেশনজট দূর করার চিন্তা করে তবে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। এমন উদ্যোগ সাহস জাগাচ্ছে।

উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, সেশনজট কিভাবে কাটিয়ে উঠা যাবে সে বিষয়ে আমরা পরিকল্পনা নিচ্ছি। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর পরই পরীক্ষাগুলো নিয়ে অল্প সময়ে ফল প্রকাশের প্রস্তুতি রয়েছে। এ পরিকল্পায় রয়েছে ছয় মাসের সেমিস্টার চার মাসে এবং বছরভিত্তিক সেশনকে আট মাস করার প্রাথমিক আলোচনা হচ্ছে তবে তা চূড়ান্ত হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর এসব বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। 

উপাচার্য অধ্যাপক ড. আখতারুজ্জামান জানান, সেশনজট কাটানোর উপায় নিয়ে আমরা আলোচনা করছি। এর মধ্যে সেশনের সময় কমানোর বিষয়টি রয়েছে। আগে করোনা প্রকোপ থেকে নিজেদের সুরক্ষা করি, পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পদক্ষেপ গ্রহণ করবো। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম