ফলাফল না পাওয়ায় চাকরির আবেদনে অনিশ্চয়তায় সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা 

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২০,   অগ্রহায়ণ ১৯ ১৪২৭,   ১৬ রবিউস সানি ১৪৪২

ফলাফল না পাওয়ায় চাকরির আবেদনে অনিশ্চয়তায় সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা 

ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৩৫ ২০ অক্টোবর ২০২০  

চাকরির আবেদন করতে পারছেন না সাত কলেজের ১৪-১৫ সেশনের একাধিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা

চাকরির আবেদন করতে পারছেন না সাত কলেজের ১৪-১৫ সেশনের একাধিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা

নয় মাসেও ফলাফল না পাওয়ায় চাকরির আবেদন করতে পারছেন না সাত কলেজের ১৪-১৫ সেশনের একাধিক বিভাগের শিক্ষার্থীরা। এরই মধ্যে গতকাল প্রকাশ হয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি৷ আবেদন প্রক্রিয়া শুরুর আগেই এসব বিভাগের ফলাফল প্রকাশের দাবি জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা৷ 

ভুক্তভোগ শিক্ষার্থীরা জানায়, ২০১৮ সালের (২০১৪-১৫ সেশন) ৪র্থ বর্ষের লিখিত পরীক্ষা শেষ হয় চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারী  ৷ অধিভুক্ত সাত কলেজে মোট ২৫ টি চলমান বিভাগে মধ্যে ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং,অর্থনীতি,সমাজবিজ্ঞান,ইতিহাস, উদ্ভিদবিজ্ঞান, গনিত,পদার্থবিজ্ঞান,ভূগোল ও পরিবেশ এই ৮টি বিভাগের ফলাফল এখনও প্রকাশ করেনি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ এর ফলে একই সেশনের অন্য বিভাগের শিক্ষার্থীরা চাকরির পরীক্ষায় আবেদন করতে পারলেও বঞ্চিত হচ্ছে এই ৮টি বিভাগের শিক্ষার্থীরা৷ 'পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৩ মাসের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ হবে' সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের দেয়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের এমন প্রতিশ্রুতিও অকার্যকর৷ 

ঢাকা কলেজের ১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী ইব্রাহীম বলেন, পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৩ মাসের মধ্যে ফলাফল প্রকাশের কথা থাকলেও দীর্ঘ ৯ মাসেও আমরা ফলাফল পায়নি৷ অনার্স শেষ বর্ষে এসে ফলাফল না দেয়ার কারনে কোন চাকরিতে আবেদন করতে পারছি না ৷ একেতে সেশন জট তার উপর আবার ফল প্রকাশে বিলম্ব৷ আমরা মানষিক দুশ্চিন্তায় আছি৷ 

তিতুমীর কলেজের ১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী সুমা আখতার  বলেন, আমাদের ২০১৪-১৫  সেশনের ছাত্রছাত্রীদের পরীক্ষা শেষ হয়েছে ৯ মাস আগে কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা রেজাল্ট পাইনি। রেজাল্ট না প্রকাশের কারনে চাকরি নিয়োগ পরীক্ষাগুলোতে আবেদন করতে পারছি না। দিন দিন বয়স শেষ হয়ে যাচ্ছে  কিন্তু রেজাল্টের জন্য কিছুই করতে পারছি না।

এসব বিষয়ে জানতে চাইলে সাত কলেজের সমন্বয়ক (ফোকাল পয়েন্ট)  ও কবি নজরুল সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্ল্যাহ খোন্দকার বলেন, সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের সার্বিক  সমস্যা নিয়ে আমরা সাত কলেজের অধ্যক্ষদের নিয়ে সভা ডেকেছি৷ আজ বিকালে ঢাকা কলেজে সভা শেষে এসব বিষয়ে লিখিত আকারে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানাবো ৷

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম