‘নদী বাঁচাও’ শ্লোগানে চার শিক্ষার্থীর ৩৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণ

ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৯ ১৪২৭,   ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘নদী বাঁচাও’ শ্লোগানে চার শিক্ষার্থীর ৩৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণ

জবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১০ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৮:১২ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

চার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর ৩৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণ। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চার বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীর ৩৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণ। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

‘নদী বাচাঁও, দেশ বাচাঁও’ স্লোগানে হাইকিং ফোর্স বাংলাদেশ ক্লাবের উদ্যোগে ৩৫০ কিলোমিটার পরিভ্রমণ করেছে চার শিক্ষার্থী। ১১ দিনের এই পরিভ্রমণ ১৩ সেপ্টেম্বর হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ থেকে শুরু হয়।

পরিভ্রমণটির নেতৃত্ব দিয়েছেন ‘হাইকিং ফোর্স বাংলাদেশ’ ক্লাবের প্রধান সংগঠক মাসফিকুল হাসান টনি। তিনি বর্তমানে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩য় বর্ষের শিক্ষার্থী। তার সহযাত্রী হিসেবে ছিলেন- ইডেন মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী জাকিয়া রাফা, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বিশ্বনাথ ভৌমিক এবং জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মুস্তাকিম রহমান।

তারা হবিগঞ্জের পর মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল হয়ে শমসের নগর, কুলাউড়া, সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ, সিলেট সদর, গোয়াইনঘাট, জাফলং, বিছনাকান্দি, কোম্পানীগঞ্জ, সুনামগঞ্জ সদর, লালপুর পরিভ্রমণ করেন। নদীমাতৃক বাংলাদেশে নদীর অবস্থা খুব একটা ভালো নয়। তাই এর প্রতি সচেতনতা ছড়িয়ে দিতে তাদের এই আয়োজন। পরিভ্রমণের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল- ‘নদী বাঁচাও, দেশ বাঁচাও’।

পরিভ্রমণ সম্পর্কে জানতে চাইলে দলনেতা মাসফিকুল হাসান টনি বলেন, পরিভ্রমণ আমাদের দেশে একদমই নতুন নয়। তবে ভ্রমণকারীর সংখ্যা বেশ কম। তাছাড়া ভ্রমণকারীদের মধ্যে এ ধরনের ভ্রমণ সম্পর্কিত জ্ঞানের ঘাটতি রয়েছে। অন্যান্য ভ্রমণ মাধ্যমের তুলনায় হাইকিং বেশ ভিন্ন। হাইকিং বা পরিভ্রমণ বেশ রোমাঞ্চকর, কষ্টকর এবং অভিজ্ঞতা অর্জন ও জানার বিশেষ মাধ্যমও বটে।

তিনি বলেন, ১১ দিন নানান ধরনের অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে কেটেছে সময়। প্রতিদিনের পরিবেশ, রাত কাটানোর জায়গা সবই থাকতো ভিন্ন। যাত্রাপথে হয়েছে অনেক নতুন বন্ধু। অনেক মানুষের সহযোগিতা পেয়েছি। সাধারণ খেটে খাওয়া মানুষকে খুব কাছে থেকে দেখার এবং জানার সৌভাগ্য হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে