‘রোবট নার্স’ বানালেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ নারী শিক্ষার্থী

ঢাকা, শুক্রবার   ৩০ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৫ ১৪২৭,   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘রোবট নার্স’ বানালেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ নারী শিক্ষার্থী

রাকিবুল হাসান, গণ বিশ্ববিদ্যালয়  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৪৯ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৫:৪০ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

রোবট তৈরি করা চার নারী শিক্ষার্থী। ফাইল ছবি

রোবট তৈরি করা চার নারী শিক্ষার্থী। ফাইল ছবি

নার্স হিসেবে মানুষ নয় কাজ করবে রোবট। শুনতে অবাক হলেও আসলে তাই সম্ভব। এই রোবটের নাম ‘অ্যাভওয়ার’। বানিয়েছেন গণ বিশ্ববিদ্যালয়ে চার ছাত্রী। তারা হলেন মৌসুমি কণা, সুমনা আক্তার ও আফরিন আহমেদ বৃষ্টি ও তাদের দলনেতা দূর্গা প্রামানিক। সবাই পড়ছেন কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের শেষবর্ষে।  
 
দূর্গা প্রামানিকের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, এই রোবট শুধু নার্সের কাজ নয় আরো কাজ করতে পারবে। যেমন শরীরের তাপ মাপা, রোগীর সব তথ্য ডাক্তারকে জানিয়ে দিতে পারবে। যে কোনো অফিসে রিসিপশনে দায়িত্বরত কর্মচারীর কাজও করতে পারবে।  

দূর্গার সঙ্গে আরেকটু যোগ করলেন মৌসুমি। তিনি জানালেন, এখন প্রায়ই সবকিছুই অনলাইনে করা যায়। এই রোবট ব্লুটুথ সংযোগ থাকায় অফলাইনেও কাজ করতে পারবে। এছাড়াও হাটতে এবং কথাও বলতে পারবে। এই রোবটটি বানাতে খরচ পড়েছে ৪০ হাজার টাকা। 

বৃহস্পতিবার রোবটের বিষয়ে সিএসই বিভাগের চেয়ারম্যান করম নেওয়াজ বলেন, ডিপার্টমেন্ট থেকে শেষ সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন প্রজেক্ট দেয়া হয়। সে অনুযায়ী এই ধরনের চমৎকার কাজগুলো শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে উঠে আসে। আমাদের শিক্ষার্থীরা অসাধারণ কর্মদক্ষতার অধিকারী, যার প্রমাণ এই উদ্ভাবন। এটাকে ডেভেলপ করতে আরও কিছু কাজ চলছে। রোবটটির পেছনে যারা কাজ করেছে, তারা প্রত্যেকেই মেয়ে। মেয়েরা যে কোনো অংশে পিছিয়ে নেই, এটা তার প্রমাণ।

চলিত বছরের ২৫ জানুয়ারি ক্যাম্পাস সংলগ্ন নিরিবিলিতে একটি পরীক্ষাগারে এর কাজ শুরু হয়। ২১ সেপ্টেম্বর রোবটটিকে নিজ বিভাগে উন্মুক্ত করা হয়। বিভাগীয় প্রজেক্টের অংশ হিসেবে এ কাজ শেষ হয়।

পুরো কাজটি সম্পন্ন করতে সুপারভাইজার হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন সিএসই বিভাগের শিক্ষক শেলিয়া রহমান, কো-সুপারভাইজার ছিলেন বিভাগের শিক্ষক রোয়িনা আফরোজ অ্যানি। এছাড়া প্রযুক্তিগত সহায়তা প্রদান করেন উজ্জ্বল সরকার।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর/জেডএম