কানাডায় স্কলারশিপ পেতে যা করবেন

ঢাকা, শনিবার   ৩১ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ১৬ ১৪২৭,   ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

কানাডায় স্কলারশিপ পেতে যা করবেন

শিক্ষাঙ্গন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৪ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০   আপডেট: ১৭:৩৮ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

ছবি: কানাডায় স্কলারশিপ পেতে যা করবেন

ছবি: কানাডায় স্কলারশিপ পেতে যা করবেন

বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে উচ্চতর শিক্ষা নেয়ার জন্য বেশ আগ্রহী। সাফল্যে অবদানও রাখছে তারা। স্কলারশিপ নিয়ে বাইরের দেশে পড়তে যাওয়ার জন্য কানাডা আছে প্রথম সারিতে। এইচএসসি ও অনার্স পাস করেই অনেক শিক্ষার্থী কানাডার বিভিন্ন কলেজগুলোতে আবেদন করে থাকেন। গত আট থেকে ১০ বছর ধরে বাংলাদেশি ছাত্রছাত্রীরা কানাডার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উচ্চশিক্ষা গ্রহণে পাড়ি জমাচ্ছে।

তবে অনেকেই জানেন না, কীভাবে আবেদন করতে হয় কিংবা কীভাবে একটি ভালো স্কলারশিপ পাওয়া যায়। আজ জেনে নিন কীভাবে সহজে আপনি কানাডায় স্কলারশিপ পেতে পারেন। কীভাবে আবেদন করবেন তাও জেনে নিন- 

কানাডার নামকরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর ডিগ্রিসমূহ বিশ্বমানের তো বটেই, আমেরিকা এবং কমনওয়েলথভুক্ত অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রিরও সমতুল্য। তাছাড়া পড়াশোনা চলাকালীন কানাডার নাগরিকত্বও পাওয়ার সুযোগ রয়েছে। কানাডায় একজন শিক্ষার্থী ইচ্ছা করলে দুইভাবে পড়ালেখা করতে পারে। 

ফুলটাইম অথবা পার্টটাইম পড়াশোনায় এখানে রয়েছে আন্ডার গ্র্যাজুয়েট, পোস্ট গ্র্যাজুয়েট, ডক্টরাল, পিএইচডি কোর্স। এখানকার বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে আরো রয়েছে কো-অপারেটিভ এডুকেশন, ডিসট্যান্ট লার্নিং, কন্টিনিউয়িং এডুকেশন এবং স্টুডেন্ট এক্সচেঞ্জ প্রোগ্রামের মতো আরো অনেক কোর্স ও পদ্ধতি। এখানে শিক্ষার দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য ওয়ার্কশপ ও কাউন্সেলিং ব্যবস্থা রয়েছে এবং আর্থিক সহযোগিতার জন্য বিভিন্ন স্কলারশিপ দেয়া হয়ে থাকে। 

কানাডার একাডেমিক বছর সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে মে মাসে শেষ হয়। বছরে দুটি সেমিস্টার থাকে। সেপ্টেম্বর অথবা জানুয়ারি। তবে  সেমিস্টারে ভর্তির জন্য আবেদন প্রক্রিয়া আট মাস আগে শুরু করা ভালো। সব বিশ্ববিদ্যালয়েরই ওয়েব সাইড রয়েছে। সেখানে গিয়ে আপনি আবেদন করতে পারবেন। স্কলারশিপ আবেদনের সময়সূচি ও যোগ্যতাসমূহ জানতে আপনাকে তাদের ওয়েবসাইটসমূহ ভিজিট করতে হবে। প্রতি বছর ১৭৭ জনকে বৃত্তি প্রদান করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির পর আপনি অনেক ধরনের বৃত্তির সুযোগ পাবেন। আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী ১৬ থেকে ৫০ ডলার পর্যন্ত বৃত্তি পেতে পারেন। সঙ্গে ফ্রি রিচার্সের সুবিধা।  

এই বৃত্তির আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু করতে আপনাকে অবশ্যই একটি কানাডিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের ডক্টরাল প্রোগ্রামে ভর্তি হতে হবে। তিন বছরের অধ্যয়নের জন্য এই বৃত্তির মূল্য প্রতি বছর ৫০ হাজার ডলার হয়। প্রতি বছর ছয়জন নতুন ছাত্রকে পুরষ্কার দেয়া হয়। প্রাপকদের অবশ্যই আন্তর্জাতিক শিক্ষার্থী হতে হবে। যাদের বৈধ কানাডিয়ান স্টাড পারমিট রয়েছে এবং পিএইচডি পর্যায়ে পূর্ণকালীন স্নাতক পড়াশোনা করার ইচ্ছা পোষণ করতে হবে।    

কানাডায় আপনি যে বিষয়গুলোতে পড়তে পারবেন- 

কম্পিউটার সায়েন্স, বায়োলজি, ফিজিক্স, কেমিস্ট্রি, ফুড সায়েন্স, কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড রিসোর্সেস, ইলেকট্রনিক্স, মেডিক্যাল সায়েন্স অ্যান্ড সার্ভিসেস, মেরিন অ্যাফেয়ার্স, এগ্রিকালচার, ইকোনোমিক্স, অ্যাপ্লায়েড কম্পিউটার সায়েন্স, ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট, অ্যারোস্পেস ইঞ্জিনিয়ারিং, অ্যাসট্রোনমি, অ্যাপ্লায়েড জিওগ্রাফি, আর্কিটেকচারাল সায়েন্স, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং, কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং, ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল হেলথ, বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন, এডুকেশন, হোম ইকোনোমিক্স, মিউজিক, ফিলোসফি, হিস্ট্রি অ্যান্ড রিলিজিওন, ইংলিশ, ল, থিয়েটারসহ আন্ডার গ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে প্রায় ১০ হাজার বিষয় এবং পোস্ট গ্র্যাজুয়েট পর্যায়ে প্রায় তিন হাজার বিষয় পড়তে পারবেন। 

স্কলারশিপের জন্য আপনার যোগ্যতা
> একাডেমিক এক্সিলেন্স (৮০% মার্কস) থাকতে হবে।
> রিসার্চ এবিলিটি (জার্নাল পাবলিকেশন) থাকতে হবে।
> ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ প্রফিসিয়েন্সি (স্কোর সাত দশমিক পাঁচ) থাকতে হবে। আইএলটিএস করতে হবে আপনাকে। 
> কমিউনিকেশন ও লিডারশিপ দক্ষতা থাকতে হবে।
> গবেষণা ও প্রকৌশল দক্ষতা, প্রাকৃতিক বিজ্ঞান, মানবিকতা, সামাজিক বিজ্ঞান বা স্বাস্থ্য বিজ্ঞানের ধারণা থাকতে হবে।

কানাডায় স্কলারশিপসমূহ 

গভর্নমেন্ট অব কানাডা ইন্টারন্যাশনাল স্কলারশিপ প্রোগ্রাম: এই স্কলারশিপ মূলত গ্লোবাল অ্যাফেয়ার্স কানাডা প্রদান করে থাকে। যা কানাডা সরকার কর্তৃক প্রদান করা হয়ে থাকে।

ভ্যানিয়ার কানাডা গ্রাজুয়েট স্কলারশিপ প্রোগ্রাম: স্কলারশিপটি মূলত পিএইচডি স্টুডেন্টদের জন্য। প্রোগ্রামটি ৩ বছরের জন্য। প্রতি বছরের জন্য ৫০ হাজার ডলার প্রদান করা হয়ে থাকে।

কুইবেক গভর্নমেন্ট স্কলারশিপ অ্যান্ড গ্রান্টস: এটি প্রধানত পোস্ট ডক্টোরিয়াল ফলোশিদের জন্য। এটি অনেক সময় শর্টটাম রিসার্চ ও প্রফেশনাল ডেভেলপমেন্ট এর জন্য প্রদান করা হয়।

পিয়ারি এলিয়ট ট্রুডো ফাউন্ডেশন ডক্টোরিয়াল স্কলারশিপ: প্রতি বছর ১৫ জন আউস্টান্ডিং ডক্টরাল প্রার্থীকে দেয়া হয়। প্রতি বছর ৬০ হাজার ডলার প্রদান করা হয়। এই প্রোগ্রামটি ৪ বছরের জন্য হয়ে থাকে।

কানাডিয়ান কুইন এলিজাবেথ-২ ডায়মন্ড জুবিলী স্কলারশিপ: স্কলারশিপটি মূলত ইনোভেশন লিডার ও কমিউনিটি বিল্ডারদের দেয়া হয়। যারা কমনওয়েলথভুক্ত দেশ; তারাই শুধু মাস্টার্স ও ডক্টোরিয়াল প্রসূনের জন্য আবেদন করতে পারবে।

এগুলো ছাড়াও রয়েছে 
> অন্টারিও গ্রাজুয়েট স্কলারশিপ
> অন্টারিও ট্রিলিয়াম স্কলারশিপ 
> ইউনিভার্সিটি অব ওয়াটার লু ইন্টান্যাশনাল মাস্টার্স অ্যান্ড ডক্টোরিয়াল অ্যাওয়ার্ডস
> ইউনিভার্সিটি অব ম্যানিটোবা গ্রাজুয়েট ফেলোশিপস
> ইউনিভার্সিটি অব ক্যালগ্যারি গ্রাজুয়েট অ্যাওয়ার্ডস
> ইউবিসি গ্রাজুয়েট গ্লোবাল লিডারশিপ ফেলোশিপস
> বান্টিং পোস্ট ডক্টরাল ফেলোশিপস
> কানাডা গ্রাজুয়েট স্কলারশিপ মাস্টার্স প্রোগ্রাম
> কার্লিটোন ইউনিভার্সিটি অ্যাওয়ার্ডস ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টস
> ডালহাউস ইউনিভার্সিটি স্কলারশিপ
> ফেয়ারলেগ ড্যাকিন্সন স্কলারশিপ ফর ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্টস
> ম্যাকগেইল ইউনিভার্সিটি স্কলারশিপ
> কুইন ইউনিভার্সিটি ইন্টারন্যাশনাল স্কলারশিপ
> ইউনিভার্সিটি অব সাচকাচুয়ান ইন্টারন্যাশনাল স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ডস
> সাইমন ফ্রেসার ইউনিভার্সিটি ফিন্যান্সিয়াল এইড অ্যান্ড অ্যাওয়ার্ডস
> ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ইন্টারন্যাশনাল অ্যাডমিশন স্কলারশিপ

ডেইলি বাংলাদেশ/কেএসকে