‘নগদ’-এ ক্যাশ আউট চার্জ মাত্র ৯.৯৯ টাকা

ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০,   কার্তিক ৯ ১৪২৭,   ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

‘নগদ’-এ ক্যাশ আউট চার্জ মাত্র ৯.৯৯ টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:০৪ ১ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১০:৩৮ ২ অক্টোবর ২০২০

ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

দেশের মোবাইল ব্যাংকিং-এর ইতিহাসে এই প্রথম ‘নগদ’ নিয়ে আসলো সবচেয়ে কম খরচে ক্যাশ আউট করার সুবিধা। এখন থেকে ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’-এ এক হাজার টাকা ক্যাশ-আউটে খরচ হবে মাত্র নয় টাকা ৯৯ পয়সা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উপলক্ষে ‘নগদ’-এর পক্ষ থেকে সব গ্রাহকদের জন্য ক্যাশ-আউটের এই চার্জ উপহার হিসেবে দেয়া হয়েছে।

তবে কোনো গ্রাহক মোবাইল ফোনের ইউএসএসডি দ্বারা ক্যাশ-আউট করলে এই চার্জ হবে হাজারে ১২ টাকা ৯৯ পয়সা। হ্রাসকৃত এই ক্যাশ-আউট চার্জ সুবিধা পেতে গ্রাহককে দুই হাজার একশ’ টাকার ওপরে ক্যাশ-আউট করতে হবে। ‘নগদ’ নির্ধারিত এই চার্জের সঙ্গে গ্রাহককে ক্যাশ-আউটের ক্ষেত্রে সরকার নির্ধারিত ১৫ শতাংশ হারে কর যোগ হবে।

‘নগদ’- এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক তানভীর এ মিশুক হ্রাসকৃত এই ক্যাশ-আউট চার্জ নির্ধারণ বিষয়ে বলেন, সব সময়ই এত বেশি হারে ক্যাশ-আউট চার্জের বিরুদ্ধে আমাদের অবস্থান। গত এক দশক ধরে ক্যাশ-আউটের যে ফি প্রচলিত রয়েছে (হাজারে ২০ টাকা) সেটি গ্রাহকের ওপর অত্যাচার বলেই আমরা মনে করি। সে কারণে শুরু থেকেই গ্রাহকদের জন্য ‘নগদ’ সর্বনিম্ন ক্যাশ-আউট চার্জ অফার করে আসছে।

তানভীর এ মিশুক আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে ‘নগদ’- এর গ্রাহকদের জন্য চমক জাগানো এই অফার ঘোষণা করা হল। এর ফলে গ্রাহকের ‘নগদ’ ব্যবহার আগের চেয়ে অনেক সাশ্রয়ী হবে এবং আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে ডিজিটালাইজেশন প্রক্রিয়াটি তরান্বিত হবে। আমরা মনে করি এ বিষয়ে সরকার উদ্যোগ নিয়ে সব মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের জন্য সর্বোচ্চ ক্যাশ-আউট চার্জের একটি সীমা নির্ধারণ করে দিতে পারে।

সর্বনিম্ন ক্যাশ-আউট চার্জ উপভোগ করার পাশাপাশি ‘নগদ’- এর গ্রাহকরা শুরু থেকেই  ফ্রি সেন্ড মানি করতে পারছেন। যদিও অন্যান্য অপারেটরের ক্ষেত্রে এই লেনদেনের জন্যও গ্রাহককে খরচ গুণতে হয়।

করোনা মহামারির শুরু থেকে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের পাশে থাকতে ‘নগদ’ পাঁচ ধরনের ব্যবসায়ীদের ক্ষেত্রে লেনদেনের ওপরে ক্যাশ-আউট চার্জ হাজারে মাত্র ছয় টাকায় নিয়ে আসে, যা ব্যবসা-বাণিজ্যের মন্দার এই সময়ে ব্যবসায়ীদের ব্যবসায় পরিচালন খরচ কমিয়ে এনেছে।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ২৬ মার্চ বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে ডাক বিভাগের ডিজিটাল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস ‘নগদ’। শুরুর পর চমৎকার সব সেবার মাধ্যমে এরইমধ্যে ‘নগদ’ নিজেদের দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছে। দেড় বছরের এই যাত্রায় সরকারি-বেসরকারি নানা উদ্ভাবনী কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হয়েছে রাষ্ট্রীয় সেবা ‘নগদ’।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচএফ/জেডআর