Daily Bangladesh :: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা, রোববার   ১১ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ২৮ ১৪২৭,   ২৭ শা'বান ১৪৪২

রাজকাহন ডিবিসি নিউজ ২২০০ ঘটিকা ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১

2021-02-28 22:00:00

অধ্যাপক ড. গোলাম রহমানঃ

 (কারাগারে মুশতাকের মৃত্যু দায়) দায় কাউকে না কাউকে তো স্বীকার করতেই হবে। দায় রাষ্ট্রের, দায় সরকারের। দায় অস্বীকার করার কোন সুযোগ নেই। দশ মাস তিনি বন্দি হয়ে রইলেন, ৬ বার তার জামিনের আবেদন করা হয়েছিল কিন্তু তিনি জামিন পেলেন না। ৬ বার তার জামিন প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে। ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট যখন থেকে হয় তখন থেকেই কিন্তু আমরা এটা নিয়ে অনেক আলোচনা করেছি, অনেক প্রশ্ন উত্থাপন করেছে, অনেক প্রসঙ্গ টেনিয়েছি, সাংবাদিক মহলে এটা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে। সাংবাদিকরা তাদের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন কিন্তু তখন আমরা শুনেছিলাম এই আইনটি সাংবাদিকদের জন্য ব্যবহার করা হবে না। এটাও আমরা জানি যে, আইন আইনই, কার জন্য ব্যবহার হবে কার জন্য হবে না এই নিশ্চয়তা কেউ দিতে পারে না। নাগরিক হিসেবে যিনি অভিযুক্ত হবেন, যার বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকবে তার বিরুদ্ধে ব্যবহার হবে, বিষয়টা এরকম। কিন্তু আমরা দেখছি আইনটির যে কতগুলি ধারা আছে যা যথেষ্টভাবে সমালোচিত হচ্ছে। এই ধারাগুলো প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে আইনটি সুষ্ঠুভাবে প্রয়োগ করার ক্ষেত্রে। আমরা কিন্তু শুরু থেকেই বলেছিলাম এই আইনের ব্যাপক অপপ্রয়োগ হতে পারে, হবার সুযোগ আছে এবং সেটিই আমরা দেখছি যে হচ্ছে ।  ডিজিটাল সিকিউরিটি অ্যাক্ট করার অন্যতম যুক্তি হচ্ছে যে ডিজিটাল কর্মকাণ্ড দিয়ে যেন দেশের মানুষ উপকৃত হয়, কোনো-না-কোনোভাবে সুবিধা ভোগ করে এবং তার নিরাপত্তা নিশ্চিত হয়। কিন্তু সেটা তো হচ্ছে না। বিষয়টা হচ্ছে এখানে গণতন্ত্র যেমন পরাহত, আইনের শাসন পরাহত ।

জ. ই. মামুনঃ

 আজকে দৈনিক সমকালের প্রথম পাতায় একটি প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে যেখানে বলা হয়েছে যে, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বলে যে আইনটি করা হয়েছে, সেই আইনে ডিজিটাল বাংলাদেশকে রক্ষা করার জন্য যতটা প্রয়োগ হচ্ছে, তার চেয়ে অনেক বেশি প্রয়োগ হচ্ছে ভিন্নমত দমনের ক্ষেত্রে। যেখানে কেউ কোন একটা কথা বলছে যা সরকারের কোনো একজনের পছন্দ হচ্ছে না, সে হতে পারে স্থানীয় সংসদ সদস্য, হতে পারেন কোন একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তা, হতে পারে কোন একজন সাধারন সরকারি দলের নেতা, তিনি একটি মামলা করে দিচ্ছেন এবং কখনো কখনো নেতাও না একজন সাধারণ কর্মী নাম ব্যবহার করে মামলাটি করা হচ্ছে এবং পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যাচ্ছে। বলছেন যে তিনি এমন কিছু করছেন যা রাষ্ট্রের জন্য হুমকি ।  আমাদের আপত্তিটা এখানেই যে, আইনটি সঠিকভাবে প্রয়োগ করা হচ্ছে না। লেখক মুশতাক আহমেদ তিনি সাংবাদিক নন, তার উপর এই আইনটি প্রয়োগ করা কি বাধ্যতামূলক? যৌক্তিক? তা তো না। কেন একটি নাগরিকের উপর এটি প্রয়োগ করা হবে? তিনি এমন কোনো অপরাধ করেননি আমাদের সাধারণ মানুষের বিবেচনায় যার জন্য তাকে দশ মাস ধরে কারাগারে থাকতে হবে, ছয়বার আবেদন করে তিনি জামিন পাবেন না। অথচ আমরা সোশ্যাল মিডিয়াতে দেখলাম হাজী সেলিমের ছেলেকে জেলে নেয়া হলো, অস্ত্র পাওয়া গেল, মাদক পাওয়া গেল, আরো কত কিছু বলা হল, সেখানে তাঁর জামিন হয়ে যায় অথচ একজন নিরীহ লেখ যার হাতে বন্দুক নেই যার হাতে কামান নেই যার হাতে কোন গোলাবারুদ নেই, কোন মাদকদ্রব্য নেই এবং তিনি নিজে কিছু লেখেনি আরেকজন কার্টুনিস্টের বক্তব্য সমর্থন করে শেয়ার করেছেন । আমরা দেখেছি যুদ্ধ অপরাধীদের মতন চরম অপরাধী তারাও কিন্তু কারাগারে থাকা অবস্থায় অসুস্থ হলে হাসপাতালে ভিভিআইপি চিকিৎসায় তাদের রাখা হয়েছে। অনেককেই আমি তাদের নাম নাইবা বললাম। কিন্তু মুশতাক অসুস্থ তাকে কেন কারাগার থেকে হাসপাতালে নেয়া হলো না, তাকে কারাগারে কেন মৃত্যুবরণ করতে হলো। এখানে অবশ্যই প্রতিবাদের ব্যাপার আছে, তার যদি সাধারণ ডায়রিয়া হয়েও মারা যান তারপরেও সে মৃত্যুটি হাসপাতলে হওয়া কাম্য ছিল কারাগারের ভেতরে নয়। সুতরাং আমি মনে করি এই প্রতিবাদ অবশ্যই যৌক্তিক।

অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদঃ

 আমরা কথা বলছি একটি ডিজিটাল মাধ্যমে, আপনি কি আমাকে নিশ্চয়তা দিতে পারবেন যে, আমি এই ডিজিটাল মাধ্যমে যে কথা বলবো তার কারণে আমার বিরুদ্ধে কোনো মামলা হবে না! এই নিশ্চয়তা কি আপনি দিতে পারবেন? পারবেন না। তো সেক্ষেত্রে স্বাভাবিক ভাবে বোঝা যাচ্ছে যে আপনি যেহেতু এরকম একটা ক্ষরব মাথার উপরে থাকে তখন স্বাভাবিক ভাবেই যে যাই বলুক সবকিছু কিন্তু একটি নিয়ন্ত্রিত অবস্থায় চলে আসছে এবং এই নিয়ন্ত্রনটা স্থায়ী করার জন্যই যে কথা বলছে তাকেই ধরে নেয়া হচ্ছে, যে কথা বলছে পছন্দ হচ্ছেনা বা প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে তাকে মামলা দেয়া হচ্ছে। এটি হলো আপনার একটি অসৎ উদ্দেশ্যে করা ।  ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনটা এমন একটা হাতিয়ার হয়েছে যে আপনার সাথে যা শত্রুতা আছে সেটা মিডিয়া হোক, সেটা আইনজীবী হোক, সেটা সাংবাদিক হোক, এই আইনটা খুব সহজেই ব্যবহার করা যায় এবং শত্রুকে ঘায়েল করা যায় এবং বিশেষ করে এই সুযোগটা প্রভাবশালীরাই নিতে পারে ।

মোঃ মোখলেছুর রহমানঃ

একটি মামলার তদন্ত পুলিশ কিভাবে অনুসন্ধান করবে সেটা তাদের কৌশলের উপর নির্ভর করে। যদি আমরা একজন মানুষ হিসেবে মূল্যায়ন করি তাহলে সে একজন অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইনের মামলারগুলোর প্রমাণ সাথে সাথেই পাওয়া যায়। সাক্ষীর গ্রহণযোগ্যতা যদি থেকে থাকে তাহলে আদালত অবশ্যই সেটা গ্রহণ করবে সে ক্ষেত্রে তিনি একজন দারোয়ানও হতে পারে। পুলিশ নিজেদের ইচ্ছামত আইন ঠিকঠাক করে চলবে এটা হতে পারে না। পুলিশের জবাবদিহিতা দায়িত্ব নিয়ে বরাবরই অনেক প্রশ্ন থাকে, পুলিশ তার আইন অনুযায়ী তার কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে এবং তদন্তের ক্ষেত্রে পুলিশ এর শেষ পর্যন্ত যায়। আদালতে যখন একটি মামলায় জামিন হয় না তখন পুলিশ ধরে নিতে পারে যে তাদের দেয়া তথ্য যথাযথ গ্রহণযোগ্যতা রয়েছে।

শিরোনাম:

Bulletনিষিদ্ধ সংগঠন জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক গ্রেপ্তার। Bulletরাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে এক আনসার সদস্য নিহত। Bulletবিসিবি পরিচালক আকরাম খান করোনায় আক্রান্ত। Bulletপরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এ কে এম রফিক আহাম্মদ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। Bulletসাভারের জিরাবো এলাকায় একটি কারখানায় আগুন। নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিট। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৬৩ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯,৫৮৪ জন। ৩১,৬৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ৭,৪৬২ জন। Bulletকরোনার ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সারাদেশে ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউন, জরুরি সেবা ছাড়া সব বন্ধ থাকবে...সময় সংবাদকে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। Bulletজলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোর নেতৃত্বে বাংলাদেশের অবদানের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকারের বিশেষ সম্মাননা ও স্বীকৃতি পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। Bulletউপহার হিসেবে বাংলাদেশের সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজের হাতে এক লাখ ডোজ করোনার টিকা তুলে দিলেন ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ। Bulletদেশে করোনায় একদিনে রেকর্ড ৭৪ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯,৫২১ জন। ৩৩,১৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় রেকর্ড শনাক্ত ৬,৮৫৪ জন। মোট আক্রান্ত ৬ লাখ ৬৬ হাজার ১৩২ জন। Bulletউন্নয়নশীল দেশের জোট ডি-এইট এর চার বছরের জন্য সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। Bulletশীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবি: ১৪ জনসহ কার্গো জাহাজটি গজারিয়ায় আটক Bulletকাল থেকে সকাল ৯টা-বিকাল ৫টা পর্যন্ত শপিংমল ও দোকানপাট খোলা থাকবে। স্বাস্থ্যবিধি না মানলে আইনানুগ ব্যবস্থা-- মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপন। Bulletচট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় হেফাজত কর্মীদের হামলায় আহত আওয়ামী লীগ নেতা মহিবুল্লাহ মারা গেছেন। Bulletএকুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী ইন্দ্রমোহন রাজবংশী বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। Bulletমুন্সিগঞ্জের মীরকাদিমে বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৯, আহত ৪ Bulletএতিমখানা ছাড়া কাওমি মাদ্রাসাসহ সব আবাসিক-অনাবাসিক মাদ্রাসা বন্ধ রাখতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন জারি। Bulletঢাকা ও চট্টগ্রামসহ সব মহানগরীতে কাল থেকে দিনের বেলায় গণপরিবহন চলবে; অর্ধেক আসন ফাঁকা রাখাসহ মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি- ওবায়দুল কাদের। Bulletদেশে করোনায় একদিনে রেকর্ড ৬৬ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯,৩৮৪ জন। ৩৪,৩১১ জনের নমুনা পরীক্ষায় সর্বোচ্চ শনাক্ত ৭,২১৩ জন। মোট আক্রান্ত ৬ লাখ ৫১ হাজার ৬৫২ জন। Bulletচাঁদপুরে মেঘনা নদীতে ঝড়ের কবলে পড়ে নিখোঁজ ৫ জেলের মধ্যে ৩ জনের মরদেহ উদ্ধার।