Daily Bangladesh :: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা, সোমবার   ১২ এপ্রিল ২০২১,   চৈত্র ২৯ ১৪২৭,   ২৭ শা'বান ১৪৪২

মুক্তমঞ্চ চ্যানেল ২৪ ২৩০০ ঘটিকা ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১

2021-02-27 23:00:00

সোহরাব হাসানঃ

ক্ষমতায় যাওয়ার এবং থাকার জন্য নৈতিকতা বিসর্জন দেই, আমরা মূল্যবোধকে বর্জন করি, মানুষের যে স্বপ্ন বারবার ভেঙে দেই। যারা রাষ্ট্রের ক্ষমতায় থাকেন ছিলেন তাদের কিন্তু একমাত্র রাষ্ট্রের ওপর আধিপত্য বিস্তার করা, সেটা যেকোন মূল্যেই হোক। এ কারণেই আমরা দেখি যে কখনো ধর্মের নামে, কখনো সাম্প্রদায়িকতার নামে, কখনো গোষ্ঠীর নামে, মানে ব্যক্তি এবং গোষ্ঠীর স্বার্থ হাসিল করার নানা প্রবণতা নানান তৎপরতা। গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা, একটি সুস্থ টেকসই গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা এবং এই গণতন্ত্র শুধু ভোটের গণতন্ত্র না, সেই গণতন্ত্র কিন্তু মানুষে র মৌলিক চাহিদা পূরণ করে, মানুষের বাক স্বাধীনতা নিশ্চিত করে, মানুষের ভোটাধিকার নিশ্চিত করে এরকম একটি সমাজ। ভোটাধিকার নিশ্চিত করার পরে ভোটারদের প্রতি রাজনৈতিক দল বা নেতাদের যে অঙ্গীকার সেই অঙ্গীকার রক্ষা না করলে কিন্তু গণতন্ত্র থাকে না। আমরা এখন ভোট থেকে অনেক দূরে আছি! কিন্তু যখন সুষ্ঠু ভোট ছিল, তখনও কিন্তু যারা ভোট পেয়ে ক্ষমতায় গিয়েছিলেন; তারা কিন্তু তাদের অঙ্গীকার রক্ষা করেননি। ৯০ ভাগ মানুষ সৎ, সরল, সাচ্চা কিন্তু এই ৯০ ভাগ কে শাসন করছে কিন্তু ১০ ভাগ। সমস্যা হচ্ছে এখানে, এই ৯০ ভাগ কে ভালো থাকতে দিচ্ছে না। আপনি সেটা পণ্যমূল্যের কথা বলেন, পণ্যের দাম বললে কিন্তু তার শিকার তারা হয়, দ্বিতীয় হচ্ছে যে সরকারি সেবা পেতে হলেও তাদেরকে ঘুষ দিতে হয়।

গওহার নঈম ওয়ারাঃ

আমরা যারা এখানে কথা বলছি তারা সবাই মুক্তিযুদ্ধ দেখেছি তাই ডাইরিটা আমাদেরই আমরা কেন পারলাম না। সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধের পরে যে ব্যবস্থাগুলো আমাদের নেয়ার দরকার ছিল সেটা আমরা নিতে পারি নি। শুধু যে মানুষের আর্থিক ক্ষতি হয়েছে তা না, তার সামাজিক সম্পর্ক গুলোর মধ্যে একটা বড় ধরনের ভাঙ্গন লক্ষ্য করা গেছে। আমাদের কৃষি গবেষণা ব্যাপক ধরনের হয়েছে কিন্তু এটার যে সাফল্য যেটা পৌঁছানোর কথা ছিল মানুষের কাছে, আমরা যারা রাষ্ট্রের মূল ক্ষমতায় এসে বসেছি তারা সেটাকে হতে দিচ্ছি না, তারা সেটাকে ডাইভার্ট করছে। সেজন্য চারদিকে আমরা একটা হাহাকার দেখতে পাই কিন্তু তারপরও মানুষের চেষ্টা আছে এবং এটাকে আমাদের বড় করে তুলতে হবে । রাষ্ট্র বলে তো কিছু নেই! কিছু মানুষ রাস্ট্র চালাচ্ছে এবং সেই মানুষের ভেতরে যদি পোকা মাথার মধ্যে ঢুকে যায় যে কিভাবে আমি ব্যবসাটা (শিক্ষা, চিকিৎসা নিয়ে বাণিজ্য) করবো; তাহলে তো আর রাষ্ট্রকে দোষ দিব কিভাবে? । গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো তো আমরা ভেঙ্গে ফেলেছি, সেটার কি হবে? এখানে কোন জায়গায় গিয়ে আপনি বিচার পাবেন না, কোন জায়গায় গিয়ে আপনি দুটো অভিযোগ জানাতে পারবেন না, সব জায়গাগুলো যেন মানুষের বিরোধী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে উঠছে ।

আফসান চৌধুরীঃ

বাংলাদেশ আমাদের যাদের নৈতিকতার অবক্ষয় হয়েছে, তারাতো মধ্যবিত্ত শ্রেণীর লোক। মধ্যবিত্ত শ্রেণীর একাত্তরের পরে মুখ্য লাভ করেছে। তারাতো শ্রেণি হিসেবেই সুবিধাবাদী! সাধারণ মানুষ যে বিপ্লব গুলো করেছে বাংলাদেশের সেগুলো দেখাতে চায় না, আমরা কেবল মাত্র রাজনীতির চোখ দিয়ে আমাদেরকে নেতৃত্ব দেয়। রাজনীতির চোখ তো আমরা আছিই, আমরা ফেসবুকে আছি, আমরা টকশোতে আছি, আমরা ইউনিভার্সিটিতে আছি, আমরা চুরিতে আছি। এটা সকলের বা মধ্যবিত্ত শ্রেণীর যে মুক্তিযুদ্ধ করেছিল (উপরওয়ালা) হবার জন্য, ওটা তাদের ইতিহাস ওটা তাদের রাষ্ট্র। কিন্তু বাকিদের ৯০ ভাগ মানুষের রাষ্ট্র ওই রাষ্ট্রের ভিন্ন বাস্তবতা ওটা আমরা জানতেও চাই না এবং সেই কারণেই আমাদের এই বিশৃঙ্খলা হয় যে দেশে অবক্ষয় হল, দেশের যে নৈতিকতা চলে গেল। এখন চাকরি দেয় লাইনবাজির ভিত্তিতে, আপনার অর্থনীতি চলে লাইন বাজির ভিত্তিতে, লাইন বাজির ভিত্তি মানেই হচ্ছে আপনার দক্ষতা দেখাতে হয় না, এটা তো এত সহজে নিচ্ছে না মানুষে। আপনার তো দক্ষতা দরকার নাই, আপনি একটা ডিগ্রী নিতে পারলেই লাইন করে চাকরিটা করবেন। এখন বিসিএস পরীক্ষার জন্য সবচেয়ে বেশি লোকে কেন দৌড়ায়? কারণ বিসিএস পরীক্ষায় একবার করলেই ওর বাড়ি গাড়ি ওর কয়েক পুরুষের ব্যবস্থা হয় যাবে। নির্বাচনের ব্যাপারে মানুষের আগ্রহ নেই, গণতন্ত্রের ব্যাপারে মানুষের আগ্রহ নেই। বাংলাদেশে যেহেতু নির্বাচন গণতন্ত্র দুটোই একেবারেই প্রায় শেষ হয়ে গেছে; মানুষ মূলত অর্থনৈতিক একটা রাষ্ট্রে বসবাস করে এই অর্থনীতিতে যদি সরকার বলে তাদের সুযোগ সুবিধাগুলো সীমিত, সরকার এমন কোনো ভূমিকা নেই নি আমাদের বড় বড় অর্থনৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে ।

 

শিরোনাম:

Bulletদেশে করোনায় একদিনে রেকর্ড ৭৮ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯,৭৩৯ জন। ২৯,৩৭৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ৫,৮১৯ জন। মোট আক্রান্ত ৬ লাখ ৮৪ হাজার ৭৫৬ জন। Bulletবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া করোনা পজিটিভ। Bulletআজ শেষ হচ্ছে প্রথম দফার লকডাউন; তবে প্রথম ধাপের ধারাবাহিকতা চলবে ১২ ও ১৩ এপ্রিল; ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হবে কঠোর লকডাউন: ওবায়দুল কাদের। Bulletচট্টগ্রামের এনায়েতবাজারে হেলে পড়েছে একটি পাঁচতলা ভবন, বাসিন্দাদের সরিয়ে নিচ্ছে ফায়ার সার্ভিস। Bulletনিষিদ্ধ সংগঠন জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক গ্রেপ্তার। Bulletরাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে এক আনসার সদস্য নিহত। Bulletবিসিবি পরিচালক আকরাম খান করোনায় আক্রান্ত। Bulletপরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. এ কে এম রফিক আহাম্মদ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। Bulletসাভারের জিরাবো এলাকায় একটি কারখানায় আগুন। নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিট। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৬৩ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯,৫৮৪ জন। ৩১,৬৫৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ৭,৪৬২ জন। Bulletকরোনার ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সারাদেশে ১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউন, জরুরি সেবা ছাড়া সব বন্ধ থাকবে...সময় সংবাদকে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী। Bulletজলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোর নেতৃত্বে বাংলাদেশের অবদানের জন্য যুক্তরাষ্ট্র সরকারের বিশেষ সম্মাননা ও স্বীকৃতি পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। Bulletউপহার হিসেবে বাংলাদেশের সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজের হাতে এক লাখ ডোজ করোনার টিকা তুলে দিলেন ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ। Bulletদেশে করোনায় একদিনে রেকর্ড ৭৪ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯,৫২১ জন। ৩৩,১৯৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় রেকর্ড শনাক্ত ৬,৮৫৪ জন। মোট আক্রান্ত ৬ লাখ ৬৬ হাজার ১৩২ জন। Bulletউন্নয়নশীল দেশের জোট ডি-এইট এর চার বছরের জন্য সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। Bulletশীতলক্ষ্যায় লঞ্চডুবি: ১৪ জনসহ কার্গো জাহাজটি গজারিয়ায় আটক Bulletকাল থেকে সকাল ৯টা-বিকাল ৫টা পর্যন্ত শপিংমল ও দোকানপাট খোলা থাকবে। স্বাস্থ্যবিধি না মানলে আইনানুগ ব্যবস্থা-- মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপন। Bulletচট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়ায় হেফাজত কর্মীদের হামলায় আহত আওয়ামী লীগ নেতা মহিবুল্লাহ মারা গেছেন। Bulletএকুশে পদকপ্রাপ্ত সংগীতশিল্পী ইন্দ্রমোহন রাজবংশী বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। Bulletমুন্সিগঞ্জের মীরকাদিমে বাসায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ ৯, আহত ৪