Alexa Daily Bangladesh :: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা, সোমবার   ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০,   ফাল্গুন ৪ ১৪২৬,   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪১

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রস্তুতি মুক্তবাক চ্যানেল ২৪, ২৩৩০ ঘটিকা ২৮ জানুয়ারি ২০

2020-01-28 23:30:00

অধ্যাপক ডা. তাহমিনা শিরীনঃ

ভাইরাস একটি মাইক্রো অর্গানিজম। এটি ব্যাকটেরিয়ার থেকেও ছোট জিনিস। এটি কোনও মানবদেহ বা জীবকোষ ছাড়া বাঁচতে পারেনা। এটার জীবন ও বংশবিস্তার সব কিছুর মানবদেহ বা জীবকোষের মধ্যে হয়ে থাকে। বর্তমানে যেভাবে ভাইরাস বাহিত রোগ বাড়ছে সেভাবে এর প্রতিরক্ষায় প্রতিশোধক বের হচ্ছেনা। সাধারণত ভাইরাস বাহিতরোগে আক্রান্ত রোগির কি ধরণের ভাইরাস আক্রমন করেছে, সেটা সনাক্ত করে ট্রিটমেন্ট করলে ৬ থেকে ৭ দিনের মধ্যে রোগি সুস্থ হয়ে যায়। কিন্তু যাদের শরীরে রোগবালাই থাকে তারা ভাইরাস আক্রান্ত হলে তারা ঝুঁকির মধ্যে থাকে। এছাড়া শিশু ও বৃদ্ধরা যদি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয় তাহলে তাদের জন্য এটি বেশি বিপদজনক।

 

ডা. আরিফুল বাশারঃ

করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত ৭টি স্ট্রেন বা ধরণ আছে। কিছু করোনাভাইরাস আছে যা সারা বছরই হয়ে তাকে তা আমরা স্বাভাবিক ভাবে প্রতিরক্ষা করি। বর্তমানে সারা বিশ্বেই মানুষের সাথে পশুপাখির সংর্স্পশ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা খাওয়া দাওয়া করি, লালন-পালন করছি যার কারনে এসকল ভাইরাস খুব সহজেই মানবদেহে প্রবেশ করছে। এই ভাইরাসটি সাধারণত অসুস্থ ব্যক্তি যাদের শরীরে হৃদরোগ, কিডনির ইত্যাদি রোগ থাকে তাদের ক্ষেত্রে  বিপদটা বেশি হয়ে থাকে। তবে আমি বলবো এটায় আতঙ্ক হয়ে সর্তক থাকতে হবে।     

 

প্রফেসার এম এ মান্নানঃ

করোনাভাইরাসে এখন আমাদের সাম্প্রতিক সময়ে আলোচিত বিষয়। বাংলাদেশ যেহেতু ভৌগলিক ভাবে ঝুঁকিপূর্ণ দেশ সে হিসেবে বাংলাদেশের সরকার যে সর্তকতা ব্যবস্থা নেয়ার দরকার ছিলো তা যতাযথ ভাবেই নিয়েছে এবং নিচ্ছে। তবে এই সর্তকতাটা বিষয়টি রাষ্ট্রীয়পর্যায় থেকে ব্যাক্তি পর্যায়ে যেতে হবে। করোনাভাইরাসে এই পর্যন্ত ১০৬ জনের মৃত্যু হয়েছে এখানে বেশির ভাগ মানুষের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা কম ছিলো মানে তাদের অন্যান্য রোগ আছে এমন মানুষ এবং শিশু ও বৃদ্ধরাই বেশি ছিল। এক্ষেএে এমন মানুষদের বেশি সর্তক অবস্থায় রাখা দরকার। সর্তকতার বলতে আমাদের যে ধরণের খাবার থেকে এই ভাইরাস ছড়ানোর সে সব খাবার সিদ্ধ করে খাওয়া, আক্রান্ত রোগীকে আরাদা রাখা, হাত ভালভাবে ধোলাই করা এবং প্রচুর সর্তকি করন প্রচার করা।         

শিরোনাম:

Bulletজি কে বিল্ডার্সের চুক্তি বাতিল হওয়ায় ২১০০ কোটি টাকার প্রকল্পে বিধি মেনেই দ্রুত ঠিকাদার নিয়োগ দেয়া হবে, জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী Bulletঘন কুয়াশার কারণে বঙ্গবন্ধু সেতুর টোল আদায় বন্ধ রেখেছে কর্তৃপক্ষ, দু’পাশে যানজট। Bulletরাজধানীর সাইনবোর্ড এলাকায় একটি বাড়িতে গ্যাস লিকেজের ঘটনায় একই পরিবারের ৮ জন দগ্ধ Bulletচট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন ২৯শে মার্চ, একই দিনে বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচন Bulletসিটি নির্বাচনের দিন সাংবাদিকদের লাঞ্চিত করা ছাত্রলীগের বহিস্কৃত নেতা রিয়াদ ইয়াবাসহ গ্রেফতার, কারাগারে প্রেরণ Bulletবগুড়ায় গৃহবধূকে ধর্ষণ ও আগুনে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টা মামলার প্রধান আসামি রফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। Bulletরংপুরের মমিনপুরে ব্রিজের নিচ থেকে এক তরুণীর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার। Bulletঘন কুয়াশায় দৌলদিয়া-পাটুরিয়া, শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি, শরীয়তপুর-চাঁদপুর রুটে ফেরি চলাচল বন্ধ, মাঝ নদীতে আটকে পড়েছে ১২টি ফেরি। Bulletবগুড়ায় গৃহবধুকে ধর্ষণের পর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ, ন্যাড়া করা হয়েছে মাথার চুল; স্বামী পলাতক Bulletজার্মানির রাজধানী বার্লিনে একটি কনসার্টে বন্দুকধারীর হামলা, নিহত ১, আহত ৪ Bulletআশুলিয়ায় ঝুটের গুদামে আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৩টি ইউনিট। Bulletরাজধানীর দক্ষিণখানে একটি বাসা থেকে মা, ছেলে ও মেয়ের মৃতদেহ উদ্ধার করছে পুলিশ Bulletরাঙ্গামাটির সাপছড়িতে চট্টগ্রামের কর্ণফুলী থেকে আসা পিকনিকের বাস উল্টে হেলপার নিহত, আহত ২৭। Bulletশেরপুরের শ্রীবর্দীতে নিখোঁজের ১২ ঘন্টা পর সোমেশ্বরী নদী থেকে ২ শিশুর লাশ উদ্ধার। Bulletচট্রগ্রামে অনলাইন জুয়ার মূলহোতাসহ ১৬ জনকে আটক করেছে কোতোয়ালী থানা। Bulletনিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনের চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চনের দায়ের করা মানহানির মামলায় সাবেক নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খানকে আদালতে হাজির হতে সমন জারি। Bulletদেশে পৌঁছেছে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটাররা Bulletরাজধানীর শাজাহানপুরে পাম্পের পাইপে পড়ে শিশু জিহাদের মৃত্যুর মামলায় বিচারিক আদালতের ১০ বছরের কারাদন্ড বাতিল ,৪ আসামিকেই খালাস হাইকোর্টের। Bulletশেরপুরের তারাকান্দিতে মাইক্রোবাসচাপায় নারীসহ নিহত ২ Bulletবঙ্গোপসাগরের সেন্টমার্ন্টিন দ্বীপের কাছে মালয়েশিয়াগামী রোহিঙ্গা বোঝাই ট্রলারডুবি, আট জনের বেশি মৃতদেহ উদ্ধার, জীবিত উদ্ধার ৩০, উদ্ধার চলছে: কোস্টগার্ড