Daily Bangladesh :: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১৩ ১৪২৮,   ১৮ সফর ১৪৪৩

রাজকাহন ডিবিসি নিউজ ২২০০ ঘটিকা ০২ আগস্ট ২০২

2021-08-02 22:00:00

মোঃ সিদ্দিকুর রহমানঃ

সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটা যথার্থ একটা সময় উপযোগী সিদ্ধান্ত। কারণ এই সময় গার্মেন্টস শিল্পের জন্য একটা উপযোগী সময়। এইসময় যদি গার্মেন্টস বন্ধ থাকে তাহলে আমাদের অর্ডারগুলো অন্য দেশে চলে যাবে। গার্মেন্টস খুলে দেওয়াটা খুব বেশি প্রয়োজন। কারণ এটা আমাদের অর্থনৈতিক চালিকাশক্তি, এখানে সবচেয়ে বেশি এম্প্লয়মেন্ট। গার্মেন্টসের পেছনে প্রায় পাঁচ কোটির মতো লোক জড়িত আছে। আমরা সরকারের সাথে আলোচনা করে যেভাবে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম গার্মেন্টস খোলার জন্য সেটা অবশ্যই সময় উপযোগী এবং যথার্থ ছিল। আমাদের কথা ছিল যে আমরা গার্মেন্টসের আশেপাশে যেসব শ্রমিক ভাই-বোনেরা আছে তাদেরকে দিয়ে ফ্যাক্টরি পরিচালনা করবো। শ্রমিকদের টেম্পারেচার মাপা এবং ফ্যাক্টরিতে ঢোকার সময় মাস্ক ব্যবহার করা, তাছাড়া ফ্যাক্টরির ভিতরে দুই ঘন্টা পর পর তাদের টেম্পারেচার দেখা হয়। ফ্যাক্টরির ভিতরে প্রতি তিন ঘণ্টা পরপর মাইকে এনাউন্স করা হয় ফ্যাক্টরির বাইরে গিয়ে অযথা যেন কেউ বাইরে ঘোরাফেরা না করে, সবাই যেন বাসায় থাকে। আমাদের যতগুলো ইস্যু আছে সেগুলো আমরা তাদেরকে ফলো করার জন্য অনুরোধ করছি। গার্মেন্টস খাতে টিকা দেওয়া খুবই সহজ। যেভাবে ঈদের আগে আমরা দুদিন টিকা দিয়েছি।

 

ফরহাদ হোসেনঃ

দীর্ঘদিন ধরে করোনার যে সংক্রমণটা হচ্ছে আমাদের ডাক্তার, নার্স সকলে কিন্তু পরিশ্রান্ত। বাংলাদেশ গার্মেন্টস সেক্টরটা একটা গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর। আমাদের সবার মনে রাখতে হবে যে আমাদের দেশ অর্ডার নিয়েছে অন্যদেশের। সেই মালটা পৌঁছে দিতে হবে, আমরা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। কমিটমেন্ট একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, কমিটমেন্টের উপর নির্ভর করবে আগামীতে অর্ডার পাওয়া এবং অনেকগুলো বিষয়। করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি আমরা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেছি, বিধিনিষেধ দিয়েছি। সেই ক্ষেত্রে এই রপ্তানিমুখী শিল্প কলকারখানা বিধিনিষেধের আওতা বহির্ভূত রেখেছিলাম। ১৪ দিন বিধিনিষেধ দেওয়ার পরে যতটুকু আমরা নিয়ন্ত্রণ করলাম এরপর আবার আট দিনের জন্য খুলে দিতে হলো। সেজন্য পরবর্তীতে আমাদের আবার কঠোর লকডাউন দিতে হলো। ২৩ তারিখ থেকে ৩১ তারিখ পর্যন্ত এবার প্রথমবারের মতো গার্মেন্টস বন্ধ রাখতে পেরেছি এবং গার্মেন্টস কর্মীদের চলাচল বন্ধ রাখতে পেরেছি। আমরা সংক্রমণ কমানোর জন্য আন্তরিকভাবে কাজ করছি, সবগুলো পদ্ধতি প্রয়োগ করার চেষ্টা করছি, মানুষকে বুঝিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছি। ইতিমধ্যে বিভিন্ন কমিটির মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই নির্দেশনা অনুযায়ী কমিটিগুলো কাজ করছে।

 

অধ্যাপক ডা. কাজী তারিকুল ইসলামঃ

কিছু কিছু মানুষ টিকা নেওয়ার পরেও আক্রান্ত হচ্ছে। কিন্তু বেশিরভাগ রোগীর মৃদু উপসর্গ এবং ভালো হয়ে যাচ্ছে। ঢাকার বাইরে থেকে রোগী আসছে। আজকে ঢাকা মেডিকেলে যতগুলো রোগী ভর্তি হয়েছে তার বেশির ভাগই ঢাকার বাইরের। যাদের ক্রিটিক্যাল অবস্থা তারা ভাবছে ঢাকায় গেলে একটা না একটা হাসপাতালে স্থান হবে। সেটা প্রাইভেট হোক আর সরকারি হোক। এই কারণে রোগীদের ঢাকায় আগমণ বেশি। প্রান্তিক জনগোষ্ঠী বা বয়োজ্যেষ্ঠদেরকে ভ্যাকসিনটা আগে দিতে হবে। আগস্টে যদি আমরা আরও ১/২ কোটি টিকা হাতে পাই তাহলে কিন্তু আমরা আরও স্বস্তির জায়গায় থাকবো। আমরা বেশকিছু গর্ভবতী মা হারিয়েছি এই করোনা হওয়ার জন্য। আমরা অনুরোধ করছি গর্ভবতী মাকে ভ্যাকসিন দেওয়া একদম জরুরি। সরকার বারবার মানুষকে বোঝানোর চেষ্টা করছে, হার্ডলাইনে যাচ্ছে না সরকার। মানুষ কিন্তু এর অপব্যবহার করছে।

 

মোঃ হেলাল উদ্দিনঃ

আমরা এই মুহূর্তে চাচ্ছি অন্তত কিছুটা সময় হলেও আমাদের ব্রিফিং দেওয়ার সময় দেন। আমি যেন দোকানটা খুলতে পারি এবং আমি যেন দোকানে বসতে পারি। এই মুহূর্তে আমাদের দোকানে এখন আর কাস্টমার আসবে না। দুইটা ঈদের পরে মানুষ কিন্তু কেনাকাটা করতে আসে না। ১৬ মাসে আমরা রাস্তাঘাটে তেমন মানুষের চলাফেরা দেখছি না। মানুষ যে একেবারে দায়িত্বহীন আচরণ করছে ব্যাপারটা সেরকম নয়। যাদের বেশি প্রয়োজন, যারা দিন আনে দিন খায় তাদেরকে ঘর থেকে বের হতে হয়। এই পর্যন্ত আমরা যতগুলো সমস্যার কথা বলেছি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সবগুলো বিশ্লেষণ করে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। আমরা যখন গত রমজানের আগে দোকান খুলেছিলাম আমরা প্রতিজ্ঞা করেছিলাম যে একজন ক্রেতাও মাস্ক ছাড়া আসবে না। আমরা সেটি যথাযথভাবে পালন করার চেষ্টা করেছি। আমরা গত ২০২০ সালের এপ্রিল মাস থেকে বিনামূল্যে মাস্ক  দেওয়া শুরু করেছিলাম বিভিন্ন মার্কেটে। আমাদের দোকানের শ্রমিকরা অনাহারে আছে সেটা আমি বলছি না কিন্তু কষ্টে আছে। এই কষ্টটা যেভাবে হোক লাঘব করার চেষ্টা করতে হবে।

শিরোনাম:

Bulletকাল প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে বিশেষ ক্যাম্পেইনে টিকা পাবেন ৭৫ লাখ মানুষ, সুযোগ পাবেন আগে নিবন্ধিতরা—স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক। Bullet১৪ নভেম্বর এসএসসি ও ২ ডিসেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা শুরু। Bulletবিদেশ যেতে আদালতের অনুমতি: হাইকোর্টের রায় সংশোধন করলেন আপিল বিভাগ। Bulletব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় যুবদল নেতাকর্মীদের সাথে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, সাংবাদিকসহ আহত ১০, আটক ১। Bulletশেখ হাসিনার গাড়ি বহরে হামলা মামলায় সাজাপ্রাপ্ত আসামি তারিকুজ্জামান গ্রেপ্তার। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ২১ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭,৪১৪ জন। ২২,২২১ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ৯৮০ জন। মোট আক্রান্ত ১৫ লাখ ৫১ হাজার ৩৫১ জন। শনাক্তের হার ৪.৪১ শতাংশ। Bulletশাহজালাল বিমানবন্দরে আরটিপিসিআর ল্যাবে ট্রায়াল রান আজ শুরু। Bulletচট্টগ্রামের বন্দর এলাকার নিমতলা বস্তিতে আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৫টি ইউনিট। (সময় টিভি) Bulletদেশে করোনায় আরও ২৫ জনের মৃত্যু; শনাক্ত ৮১৮। ১৭,৮১৮টি নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত হার ৪.৫৯ Bulletশাহজালাল বিমানবন্দরে আরটিপিসিআর ল্যাব পুরোপুরি প্রস্তুত। রাতে একশ’ যাত্রী নিয়ে দেয়া হবে ট্রায়াল রান: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর BulletBRICS জোটে নতুন সদস্য হিসেবে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ: অর্থ মন্ত্রণালয় Bulletনেত্রকোণার বাগড়া বাজারে ট্রাক-পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে নিহত ৩ Bulletরংপুরের হারাগাছে শুক্রবার রাতে মাদকসেবীর ছুরিকাঘাতে আহত পুলিশের এএসআই পিয়ারুল ইসলাম হাসপাতালে মারা গেছেন। Bulletডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে আরও ১৮৯ জন হাসপাতালে ভর্তি, এর মধ্যে ১৬৪ জনই ঢাকার। Bulletকক্সবাজারে ৪ লাখ ৩০ হাজার ইয়াবাসহ ৫ জনকে আটক করেছে RAB। (চ্যানেল ২৪ টিভি) Bulletবাংলাদেশের সাফল্যের প্রশংসা জাতিসংঘ মহাসচিবের, শান্তিরক্ষা মিশনে এখনো শীর্ষে বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী Bulletটাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বাস-ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যানের ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২ Bulletময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ঢাকা থেকে জামালপুরগামী কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি; দুইজন নিহত, আহত এক। Bulletবিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান অসুস্থ, রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি। Bulletগাজীপুরের টঙ্গীতে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ, রেললাইন অবরোধ, সারাদেশের সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ।