Daily Bangladesh :: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা, রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৪ ১৪২৮,   ১০ সফর ১৪৪৩

রাজকাহন, ডিবিসি নিউজ টিভি ২২০০ ঘটিকা ২১ জুলাই ২০২১

2021-07-21 22:00:00

এম এ মান্নানঃ

আমরা পরাধীন বাংলাদেশে সময় কাটিয়েছি আমাদের যৌবন কালে, ওই সময় যে মানসিক চাপ আমাদের উপর ছিল এখন যে আমরা কতোটা মানসিকভাবে মুক্ত এটা হয়তো সবাই আমার আচরণে বুঝতে পারেছেন। গ্রাম-গঞ্জের প্রতি আমার অনেক বেশি টান, গ্রামীণ পরিবেশ ও সংস্কৃতির মধ্যে আমি এখনো আছি এরকম মনে হয় আমার কাছে। আমি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেছি এবং আমাদের পরিবার ছিল নিম্নআয়ের পরিবার, কাপড়, খাবার বা অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা খুবই সীমিত ছিল। আমি কখনো কাজ ফেলে ঘরে পালিয়ে আসি না, সব সময় কাজ শেষ করে আমি ঘরে ফিরে এসেছি, কখনো ক্লাব বা অন্যান্য জায়গায় যেতাম না। আমি আমার ছেলে মেয়েকে খুব কম পড়াতাম, পড়ানোর এই কাজ তার মা করতো, আমি বাচ্চাদের নিয়ে খেলাধুলা করতাম। ১৯৮৬ সালে আমি ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক ছিলাম, তখন আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের বিরোধীদলীয় প্রধান ছিলেন এরশাদ সরকারের সময়। তিনি সরকারি এক কাজে ময়মনসিংহে গিয়েছিলেন এবং তখন তার সাথে আমার সরাসরি প্রথম পরিচয় এবং কিছুক্ষন কথা বলি তার সঙ্গে। তখন আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সরাসরি বলেছিলাম আমি আপনার সঙ্গে কাজ করতে চাই এবং ২০০৫ সালে আমি আওয়ামী লীগে যোগ দেই। আমি যদি অন্য কোন মন্ত্রনালয়ে কাজ করার সুযোগ পাই তাহলে এমন কোন মন্ত্রনালয় যেতে চাইব যে মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে গ্রাম অঞ্চলের মানুষ অর্থাৎ কৃষক জড়িত।

জুলেখা মান্নানঃ

আমি খুব গম্ভীর বা কড়া ছিলাম এটা আমার ছাত্রীরা বলবে বলে মনে হয় না। ঘরে তার (এম এ মান্নান) যে দায়িত্ব সেখানে কখনো তার অবহেলা দেখিনি, বিয়ের পর থেকেই সে খুবই ঘরমুখো, তাকে বরং ঠেলে ঘর থেকে বাহিরে বের করা যেত না এবং তিনি নাতিদের সাথে থাকতে বেশি পছন্দ করে। আমাদের কোনো নাতনি নেই, তিনজন নাতি। আমার ছেলের ঘরে দুটো নাতি আর বড় মেয়ের ঘরে একজন, ৩ নাতি নিয়েই আমাদের খুব ভালো সময় কাটে। আগের ঈদ ও বর্তমানের ঈদের মধ্যে পার্থক্য অনেক বেশি। পূর্বের ঈদগুলোতে দেখা যেত খালাতো-মামাতো প্রায় সব আত্মীয়রা একই ধরনের কাপড় পড়েছি। আমরা সবাই মিলে যেভাবে ঈদ পালন করতাম বর্তমান যুগের ছেলে-মেয়েরা এই মর্মটা বুঝতে পারবেনা। আমাদের বিয়ের ক্ষেত্রে প্রথমে পরিবার থেকে কিছুটা বাধা ছিল কিন্তু পরবর্তীতে সব ঠিক হয়ে গিয়েছিল। সাধারণ মানুষের চেয়ে তার আইকিউ পাওয়ার খুব বেশি ছিল এবং এটা আমি বুঝতে পারতাম, কোন কিছু ঘটার আগে তিনি সেটা বুঝতে পারতেন।

শিরোনাম:

Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৩৫ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭,১৮২ জন। ১৯,৬৬৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,১৯০। মোট আক্রান্ত ১৫ লাখ ৪১ হাজার ৩০০ জন। শনাক্তের হার ৬.০৫ শতাংশ। Bullet১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেয়া হবে: স্বাস্থ্যমস্ত্রী। Bulletকুমিল্লার মনোহরগঞ্জে নোয়াখালী সড়কে বাস ও সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে ৪ জন নিহত। Bulletসিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেডের নিখোঁজ ব্যবস্থাপক শাহে আলমের সন্ধান মিলেছে, চাকরি সংক্রান্ত বিষয়ে অভিমান করে তিনি বরিশালে গ্রামের বাড়ি যাচ্ছেন বলে জানিয়েছে পরিবার। Bulletসিলেট গ্যাস ফিল্ড লিমিটেডের ব্যবস্থাপক শাহে আলম সন্ধ্যার পর থেকে নিখোঁজ, থানায় জিডি। Bulletকরোনার কারণে রেড লিস্টে থাকা বাংলাদেশের নাম আগামী ২২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রত্যাহার করেছে যুক্তরাজ্য। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৩৮ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭,১৪৭ জন। ২৬,৭৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,৯০৭। মোট আক্রান্ত ১৫ লাখ ৪০ হাজার ১১০ জন। শনাক্তের হার ৬.৪১ শতাংশ। Bulletইভ্যালির সিইও রাসেল ও তার স্ত্রী শামীমার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর। Bulletইভ্যালি শুরু থেকে একটি লোকসানি প্রতিষ্ঠান, দেনা এক হাজার কোটি টাকা। ইভ্যালিকে দেউলিয়া ঘোষণার পরিকল্পনা ছিল রাসেলের: র‌্যাব। Bulletদিনাজপুর সদর, বোচাগঞ্জ ও বিরলে পুলিশের অভিযানে জঙ্গি সন্দেহে ৪৫ জন আটক। Bulletজাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে আজ নিউ ইয়র্ক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। Bulletজামালপুরের ইসলামপুর থেকে নিখোঁজের ৪ দিন পর তিন মাদ্রাসাছাত্রীকে রাজধানীর মুগদা থেকে উদ্ধার। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৫১ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭,১০৯ জন। ৩১,১৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,৮৬২। মোট আক্রান্ত ১৫ লাখ ৩৮ হাজার ২০৩ জন। শনাক্তের হার ৫.৯৮ শতাংশ। Bulletঢাকার বাসা থেকে ইভ্যালির সিইও মো. রাসেল স্ত্রীসহ গ্রেপ্তার। Bulletআশ্রয়ণের ঘর যারা হাতুড়ি-শাবল দিয়ে ভেঙেছে, তাদের দ্রুত গ্রেপ্তারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর। Bulletগণমাধ্যমে সরকারি কর্মকর্তাদের বক্তব্য দেয়া নিয়ে হাইকোর্টের অসন্তোষ প্রকাশ। Bulletভিকারুননিসার অধ্যক্ষের ফোনালাপ ফাঁস: দ্রুত তদন্ত শেষ করে ৩১ অক্টোবরের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ হাইকোর্টের। Bulletবুলগেরিয়ার দেয়া উপহারের ২ লাখ ৭০ হাজার ডোজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার করোনা ভ্যাকসিন দেশে এসে পৌঁছেছে। (যমুনা টিভি) Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৫১ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭,০৫৮ জন। ২৮,৬১৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,৯০১। মোট আক্রান্ত ১৫ লাখ ৩৬ হাজার ৩৪১ জন। শনাক্তের হার ৬.৬৪ শতাংশ। (সময় টিভি) Bulletআগামী বছরের মার্চের মধ্যে মোট ২৪ কোটি করোনার টিকা পাচ্ছে বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী।