Daily Bangladesh :: ডেইলি বাংলাদেশ

ঢাকা, শনিবার   ১২ জুন ২০২১,   জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮,   ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

সম্পাদকীয় সময় টিভি ২২০০ ঘটিকা ০৫ মে ২০২১

2021-05-05 22:00:00

নিলোফার চৌধুরী মনিঃ

হেফাজত কিন্তু একটা অরাজনৈতিক সংগঠন, এটা কোনো রাজনৈতিক সংগঠন না। সরকার তার প্রয়োজনে ৮ বছর আগে যেমন হেফাজতকে ব্যবহার করেছিল, আমার মনে হয় সরকার তার প্রয়োজনে এখনো ঠিক একই অবস্থায় হেফাজতকে ব্যবহার করছে। সরকারপ্রধান সেদিন (৫ই মে হেফাজতের বিক্ষোভে) বলেছিলেন কেউ মারা যায়নি, সকলেই লাল রং মেখে শুয়েছিল। যদিও তাদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সেদিন ৫ এবং ৬ই মে ২৪ জন মারা গেছে বলে প্রেস নোট দিয়েছিল। হেফাজতের কারো গুলিতে কি একটা প্রাণ গিয়েছে? একটা পুলিশ বা একটা ছাত্রলীগ, একটা যুবলীগ? অথচ আপনি দেখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার দিকে তাকিয়ে দেখেন, যারাই তান্ডব চালিয়েছে তারা ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আওয়ামী লীগের প্রেসিডেন্টের ৩ সন্তানই এখানে আসামি হয়েছে। তো সেই জায়গায় আমি বলতে চাই যে, হেফাজতকে যে বর্তমান সরকার দাবার গুটি হিসেবে ব্যবহার করছে না এটার কারণটা কি? হেফাজতকে আমি অপকটে অনায়াসে কি আওয়ামী লীগের বি-টিম বলতে পারিনা? অধিকারের সাধারণ সম্পাদক উনি একটা এমাউন্ট, একটা সংখ্যা বলেছিল যে এতগুলো লোক (৫ই মে'র হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায়) এখানে হতাহত হয়েছে। পরবর্তীতে আমরা তাকে দেখেছি, তাকে সরকার এরেস্ট করেছে। তাকে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলাই করেছে, রাষ্ট্রদ্রোহী কোনো মামলার আসামি হঠাৎ করে আবার মুক্ত হয় কিভাবে? সেই দিন (৫ই মে'র ঘটনার) যে অরিজিনাল যে তথ্য উপাত্ত তুলে ধরার জন্য সেই দিনের সেই শাস্তিস্বরূপ দিগন্ত টেলিভিশন এবং ইসলামিক টেলিভিশনকে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আজ পর্যন্ত এই দুটো টেলিভিশন আমরা আর দেখিনা। (৫ই মে'র ঘটনায়) যারা মৃত্যুর মুখে পতিত হয়েছে, সারারাত যখন পানি দিয়ে গাড়ি ধুয়ে, পানি দিয়ে ওয়াসার পানি দিয়ে রক্তের লালকে সাদা বানিয়েছে, তারাই ভালো জানে। ইতিহাস কখনই কোন কিছুকে বিকৃত করে বেশি দিন রাখা যায় না। একদিন অবশ্যই এটি বের হবে।

সুভাষ সিংহ রায়ঃ

২০১৩ সালের ৫ ই মে হেফাজতের সমর্থকরা সাথে কি আনেনি? লাঠিসোটা থেকে শুরু করে বৈদ্যুতিক কড়াত ইত্যাদি অনেক কিছুই তারা নিয়ে এসেছে এবং তাদের ধ্বংসযজ্ঞ আমরা সকলেই দেখেছি। বলাবাহুল্য ঐ মঞ্চে যারা বক্তব্য রেখেছেন তাদের কেউ কেউ তো আজকে মহাজোটের সাথে আছেন। মনি আপা শাপলা চত্বরের ঘটনাকে ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের সাথে জড়িয়ে ফেললেন এটা খুবই দুঃখজনক। রাজনীতি মানে কি উন্মাদনা? রাজনীতি মানে কি লন্ডভন্ড করা? যেটা বিএনপি-জামাত সরকার করেছে। গণজগরণ মঞ্চ থেকে শুরু করে যে সকল মঞ্চ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় নিয়ে কাজ করছে তাদের সম্পর্কে বিএনপির কি বলেছে? ৫ই মে'র ঘটনায় আলজাজিরা ভয়ঙ্কর একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল যার পুরোটাই মিথ্যাচার।

মিছবাহুর রহমান চৌধুরীঃ

৮ বছর আগে মরহুম আল্লামা শফী সাহেব হেফাজত প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তারা ইসলামিক কথাবার্তা বলবেন, ধর্মের বিরুদ্ধে লেখালেখি হয় তার বিরুদ্ধে তারা প্রতিবাদ করবেন এবং তারা রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করবেন, এ সমস্ত কিছু বিষয় নিয়ে তারা দাবি দফা উত্থাপন করেছিলেন। তাদেরকে সম্মান দেখিয়ে তখনকার প্রধানমন্ত্রী তিনি বর্তমানেও প্রধানমন্ত্রী, তিনি তাদেরকে কথা বলার সুযোগ করে দিয়েছিলেন। তখন আমিন সরকার ক্ষমতায় আসার পর গ্রীন ক্রিসেন্ট মাদ্রাসায় অনেক অস্ত্র পাওয়া গিয়েছিল এবং ধারণা করা হয়েছিল

সেটি কওমি মাদ্রাসা, আমড়ার খোঁজখবর নিয়ে দেখেছি এই মাদ্রাসাটি কওমি মাদ্রাসা নয়, সেটা জামাত ইসলামের একটি মাদ্রাসা। ২০১৩ সাল থেকে হেফাজতের উত্থান ঘটেছে এবং হেফাজত প্রথম মানুষকে উত্তেজিত করা শুরু করে শাহবাগে যুদ্ধ অপরাধীদের বিচারেকে কেন্দ্র করে। হেফাজতের কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে সর্বপ্রথম আমরাই সরকারকে অবগত করেছে। জেএমবির একজন সদস্য কওমি মাদ্রাসার নয় এরা জামাত-শিবিরের সমর্থক ও কর্মী। এরা কেউই কওমির আলেম নয় এরা আলিয়া থেকে ডিগ্রী প্রাপ্ত।

 

স.উ.ম. আবদুস সামাদঃ

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের বিরোধীতা করে কয়েকটি সংগঠন ছিল। তার মধ্যে মুসলিম লীগ, জামায়াত ইসলামী ও নেজাম ইসলাম পার্টি। আজকে হেফাজতের ৫ সদস্যের যে নেতৃবৃন্দ আছে কিসের নেতৃত্বের অনেকই আছেন যারা মুজাহিদ বাহিনীর কমান্ডার ছিলেন। আজকের কওমি মাদ্রাসাগুলো ৭১ সালে মুজাহিদ বাহিনীর ক্যাম্প ছিল। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই বাংলাদেশের যতজনকে আছে সবাই হেফাজত মতাদর্শের। জেএমবি যতগুলো ধরা পড়েছে সবগুলি কওমি মাদ্রাসার ছাত্র, নতুন যেগুলো সেগুলো ইংলিশ মিডিয়ামের ছাত্র। আদর্শগতভাবে তারা হেফাজতের। জঙ্গী বিরুদ্ধে কওমি মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষক এবং হেফাজতের কোন বক্তব্য বা বিবৃতি নেই।

শিরোনাম:

Bulletটেকনাফে নাফ নদী থেকে শিশুসহ ৩ জনের লাশ উদ্ধার। Bulletনড়াইল পৌরসভায় আজ সন্ধ্যা সাতটা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত এক সপ্তাহের সান্ধ্যকালীন লকডাউন ঘোষণা। Bulletচট্রগ্রামের কালামিয়া বাজারে দুপক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ৪; আহত ১৩। Bulletচট্রগ্রামের কালামিয়া বাজারে দুপক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ৪; আহত ১৩। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৪৩ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৩,০৩২ জন। ১৮,৫৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ২,৪৫৪। মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ২২ হাজার ৮৪৯ জন। একদিনে শনাক্তের হার ১৩.২৪ শতাংশ। Bulletনওগাঁয় ১৯৯৪ সালে টগর হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ১৮ আসামি খালাস: আপিল বিভাগ। Bulletটানা ভারী বর্ষণেও বৃষ্টির পানি ৩ ঘন্টার মধ্য সরে যাবে, এ পরিকল্পনায় কাজ করছে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন—মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস। Bulletসরকারি আবাসন-স্থাপনায় এডিসের লার্ভা গেলে জরিমানা চারগুণ: মেয়র তাপস। Bulletপাহাড় ধসের আশঙ্কায় চট্টগ্রামের লিংক রোড তিন মাসের বন্ধ ঘোষণা। Bulletদেশে করোনায় একমাসের মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু, রাজশাহী বিভাগে ১১ জনসহ মারা গেছেন ৪৪ জন। মোট মৃত্যু ১২,৯১৩। ২৪ ঘন্টায় ১৯,১৬৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৯ এপ্রিলের পর সর্বোচ্চ শনাক্ত ২,৩২২। মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ১৫ হাজার ২৮২ জন। একদিনে শনাক্তের হার ১২.১২ শতাংশ। শ Bulletকাল থেকে ৭ দিন নাটোর পৌরসভা ও সিংড়ায় লকডাউন। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৩০ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২,৮৬৯ জন। ১৭,১৬৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,৯৭০ জন। মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ১২ হাজার ৯৬০ জন, একদিনে শনাক্তের হার ১১.৪৭ শতাংশ। Bulletবাগেরহাটের মোড়লগঞ্জে করোনা শনাক্তের হার ৮৩%। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৪৩ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২,৮০১ জন। ১৩,১১৫ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,৪৪৭ জন। মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ৯ হাজার ৩১৪ জন। Bulletরাজধানীর কাকরাইলে একটি ভবনের দোতলায় আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৬টি ইউনিট। Bulletকক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফ ক্যাম্পে পাহাড় ধস, দুই রোহিঙ্গার মৃত্যু। Bulletজামালপুরের বকশিগঞ্জে বজ্রপাতে নারীসহ ৩ জনের মৃত্যু। Bulletদেশে করোনায় একদিনে আরও ৩৪ জনের মৃত্যু, এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২,৭৫৮ জন। ১৮,১৫১ জনের নমুনা পরীক্ষায় শনাক্ত ১,৮৮৭ জন। মোট আক্রান্ত ৮ লাখ ৭ হাজার ৮৬৭ জন। Bulletজাতীয় সংসদে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে বিশেষ মন্ত্রিসভার বৈঠক চলছে। Bulletজাতীয় সংসদে ২০২১-২০২২ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা আজ।