Alexa কষ্ট ও ব্যয় কমিয়ে, ডায়াবেটিসের স্মার্ট চিকিৎসায় ‘ইনসুলিন প্যাচ’

ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৩ জুলাই ২০১৯,   শ্রাবণ ৮ ১৪২৬,   ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

কষ্ট ও ব্যয় কমিয়ে, ডায়াবেটিসের স্মার্ট চিকিৎসায় ‘ইনসুলিন প্যাচ’

ডেস্ক নিউজ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:১২ ২০ জুলাই ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

দিন দিন ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এর নিরাময়ের জন্য ওষুধ ও ইনসুলিন ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়ে থাকেন চিকিৎসকরা। কিন্তু সবক্ষেত্রেই ডায়াবেটিস চিকিৎসার প্রধানতম ওষুধ হল ইনসুলিন। এখন পর্যন্ত ইনসুলিন সাধারণত ইনজেকশন হিসেবে পাওয়া যাচ্ছে, যা অধিকাংশ রোগী সহজভাবে মেনে নিতে পারেন না। এমন অনেক ক্ষেত্র আছে যখন ইনসুলিনের কোনো বিকল্প থাকে না। তবে এই ইনসুলিন দিয়ে ডায়াবেটিসের চিকিৎসা করা অনেক কষ্ট ও ব্যয়বহুল হয়ে থাকে। যা সবার ক্ষেত্রে চালানো সম্ভব হয় না।

গবেষণা জানাচ্ছে, আকর্ষণীয় ও ইনজেকশন নয় এমন ইনসুলিন হাতের নাগালে এসে যাচ্ছে। এটি হল স্মার্ট প্যাচ। এটি তৈরি করা হয়েছে যা ত্বকের ওপরে স্থাপন করা থাকলে ওটা রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা আপনা আপনি মেপে প্রয়োজন মতো ইনসুলিন নিঃসরণ করবে। বিজ্ঞানীদের আশা, এর ফলে কোটি কোটি ডায়াবেটিসের রোগী কষ্টদায়ক ইনজেকশন নেয়ার ঝক্কি-ঝামেলা থেকে মুক্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে পারবেন।

অত্যন্ত উচ্চপ্রযুক্তির এই স্মার্ট প্যাচ অনেকটা প্লাস্টারের মতো চামড়ার সঙ্গে লেগে থাকবে এবং এটি আকারে ডাক টিকিটের মতো ছোট। এর সঙ্গে যুক্ত আছে শত শত সূক্ষ্ম সূঁচ বা মাইক্রোনিডল। মাইক্রোনিডলের সঙ্গে ইনসুলিন এবং গ্লুকোজের মাত্রা নির্ণয়ের জন্য এনজাইম সংযুক্ত থাকবে। এ প্রযুক্তির মূল বিষয় হচ্ছে ছোট ছোট বুদবুদের মতো ‘ইনটেলিজেন্ট ন্যানো-পার্টিকল।’ এই বুদবুদের মধ্যে ইনসুলিন এবং গ্লুকোজের মাত্রা নির্ণয়ের জন্য এনজাইম সংরক্ষিত থাকবে। রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ‘ইনটেলিজেন্ট ন্যানো-পার্টিকল’ তা শনাক্ত করবে এবং প্রয়োজন মতো ইনসুলিন নিঃসরণ করবে। একটি স্মার্ট প্যাচ এক নাগাড়ে কয়েক দিন ব্যবহার করা যাবে। প্রয়োজন অনুসারে সময়মতো তা বদলে নেয়া যাবে।

নর্থ ক্যারোলিনা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকগণ প্রাথমিকভাবে এটা ইঁদুরের শরীরে পরীক্ষা করে সফল হয়েছেন। অচিরেই এটা মানুষের শরীরে ব্যবহার করা হবে। সকলেরই আশা এটা সফল হলে ডায়াবেটিসে চিকিৎসা একটি নতুন স্তরে উন্নীত হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ