‘আলাদা কক্ষের খাটে পড়ে ছিল বোন ও ভাগনের নিথর দেহ’
15-august

ঢাকা, শনিবার   ১৩ আগস্ট ২০২২,   ২৯ শ্রাবণ ১৪২৯,   ১৪ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

‘আলাদা কক্ষের খাটে পড়ে ছিল বোন ও ভাগনের নিথর দেহ’

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৩১ ৩ জুলাই ২০২২  

রাজিয়া সুলতানা ও ছেলে তালহা

রাজিয়া সুলতানা ও ছেলে তালহা

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ঘরের ভেতর মা ও ছেলেকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রোববার সকালে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের উজান গোবিন্দি পশ্চিম পাড়া গ্রামে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে।

পুলিশের ধারণা, রাতের কোনো এক সময় তাদের গলা কেটে হত্যা করে পালিয়েছে হত্যাকারীরা।

নিহতরা হলেন- ওই গ্রামের প্রয়াত আউয়ালের স্ত্রী রাজিয়া সুলতানা (৪০) ও তার একমাত্র ছেলে তালহা (৮)। সে মনোহরদী মডেল কিন্ডারগার্টেনে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ত।

রাজিয়া সুলতানার বড় ভাই মফিজুল ইসলাম জানান, ১০ বছর আগে উজান গোবিন্দি পশ্চিম পাড়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী আউয়ালের সঙ্গে তার বোনের বিয়ে হয়। পাঁচ বছর আগে হঠাৎ ভগ্নিপতি আউয়াল ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মারা যান।

টিনশেড বিল্ডিংয়ে ছেলে তালহাকে নিয়ে স্বামীর ভিটায় থেকে যান রাজিয়া। সংসার চালানো জন্য খরচ দিতেন মফিজুল ও তার বোন ফারহানা আক্তার তিথি। রোববার বোনের বাড়ি থেকে তিথির কাছে ফোন আসে রাজিয়ার বাড়িতে বড় ধরনের সমস্যা হয়েছে, দ্রুত যাওয়ার জন্য। গিয়ে দেখেন আলাদা আলাদা কক্ষে বোন ও ভাগনের নিথর দেহ খাটে পড়ে রয়েছে। কারো সঙ্গে বোন-ভাগনের বিরোধ ছিল কি-না, সেই বিষয়ে কোনো তথ্য তিনি জানাতে পারেননি।

আড়াইহাজার থানার ওসি আজিজুল হক হাওলাদার জানান, স্থানীয়দের খবরের ভিত্তিতে তিনি পুলিশের টিম নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছিল।

ওসি জানান, ঘরের কলাপসিবল গেট কিংবা জানালা-দরজা ভেঙে প্রবেশের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তাই ধারণা করা হচ্ছে, পূর্ব পরিচিত কেউ এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন। তবে ঠিক কী কারণে এ হত্যাকাণ্ড, এখনই বলা যাচ্ছে না। তদন্ত চলছে, পরে বিস্তারিত বলা যাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম

English HighlightsREAD MORE »