ইউএনও’র মহানুভবতায় দেশে ফিরল নূরুল ইসলাম
15-august

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৯ আগস্ট ২০২২,   ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯,   ১০ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

ইউএনও’র মহানুভবতায় দেশে ফিরল নূরুল ইসলাম

ত্রিশাল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:৪৩ ২৪ জুন ২০২২  

ইউএনও আক্তারুজ্জামান ও ভুক্তভোগী নূরুল ইসলাম

ইউএনও আক্তারুজ্জামান ও ভুক্তভোগী নূরুল ইসলাম

পরিবারের সচ্ছলতা ফেরাতে বাবার সহায় সম্বল শেষ করে প্রায় ১৪ বছর আগে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলার বালিপাড়া ইউনিয়নের বিয়ারা দক্ষিণপাড়া গ্রামের শাহাদাত আলী শেখের ছেলে মো. নূরুল ইসলাম।

মাঝে দু’বার ছুটিতে দেশে আসলেও পরিবারের ভাগ্যের পরিবর্তন হয়নি, তৃতীয়বার আবারও ছুটি কাটিয়ে সুন্দর ভবিষ্যতের আশায় ফিরে যান কর্মস্থল মালয়েশিয়ায়। এবার পিছু নেয় বিপদ, শুরু হয় কষ্টের দিনের। মালয়েশিয়ান সরকারের আইনে তার জেল হয় পাঁচ বছরের। ঐ দেশের হাই কমিশনের ২য় সচিব ও ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী অফিসার আক্তারুজ্জামানের মহানুভবতায় অবশেষে কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে ফিরেছেন নিজ দেশ ও পরিবারের মাঝে।

পরিবার ও ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয় সূত্র জানায়, মালয়েশিয়া সরকারের আইনে পাঁচ বছরের জেল হয় নূরুল ইসলামের। বিষয়টি নজরে আসে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ হাই কমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারি (লেবার) সুমন চন্দ্র দাসের। পরিবারের সন্ধান পাওয়া গেলে হাই কমিশনের মাধ্যমে পাঁচ বছরের জায়গায় দুই বছরে একটি বিশেষ সুযোগে নূরুল ইসলামকে কারাগার থেকে মুক্ত করা সম্ভব বলে তিনি বিষয়টি ত্রিশাল উপজেলা নির্বাহী অফিসার আক্তারুজ্জামানকে অবহিত করেন।

ইউএনও আক্তারুজ্জামান গত ১৩ জুন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউএনও ত্রিশাল আইডি থেকে নূরুল ইসলাম এর সন্ধান চেয়ে একটি পোস্ট করা হয়। এছাড়া ওই পোস্টটি ইউএনও এর সূত্রধরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আলোকিত ত্রিশালসহ বেশ কিছু আইডিতে পোস্ট করায় ভাইরাল হয় বিষয়টি।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের কল্যাণে ২৪ ঘণ্টা পার হওয়ার আগেই সন্ধান মেলে নূরুল ইসলামে পরিবারের। গত ১৪ জুন তার স্ত্রী, সন্তান ও বড় ভাই আব্দুল আউয়াল আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে। জানানো হয় নূরুল ইসলামকে দেশে ফেরত আনার বিষয়টি, খোঁজ নেন নূরুল ইসলামে পারিবারের, প্রবাস জীবন সম্পর্কেও বিস্তারিত কথা বলেন ইউএনও আক্তারুজ্জামান।

নূরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে নিয়ে আসতে বিমানের টিকিট ক্রয় করারও সাধ্য ছিল না পরিবারের। বিষয়টি উপলব্ধি করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আক্তারুজ্জামান নিজ উদ্যোগে স্থানীয়দের সহায়তায় টিকিট ক্রয় করার ব্যবস্থা করে দেন। গত ১৫ জুন বিমানের টিকিট ক্রয় করা হয়।

গত ২২ জুন নূরুল ইসলাম কুয়ালামাপুর বিমানবন্দর থেকে ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে দেশে ফেরেন। প্রবাসী নূরুল ইসলাম এক স্ত্রী ও এক সন্তানের জনক।

নূরুল ইসলামের কারাবাস ও ফিরিয়ে আনার উদ্যোগের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে বেশ কয়েকদিন ধরে। অনেকে ইউএনওকে ঐ প্রবাসীর পাশে থাকায় কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আক্তারুজ্জান বলেন, একজন রেমিট্যান্স যোদ্ধার খোঁজ নিতে পেরেছি, পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সার্বিক বিষয়ে কথা বলে নূরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনার সুযোগ পেয়েছি বলে আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ

English HighlightsREAD MORE »