২৬ জনকে উদ্ধারে ৪ ঘণ্টার শ্বাসরূদ্ধকর অভিযান
15-august

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৯ আগস্ট ২০২২,   ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯,   ১০ মুহররম ১৪৪৪

Beximco LPG Gas
15-august

শেরপুরে পাহাড়ি ঢল

২৬ জনকে উদ্ধারে ৪ ঘণ্টার শ্বাসরূদ্ধকর অভিযান

ঝিনাইগাতী (শেরপুর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:১৫ ১৮ জুন ২০২২   আপডেট: ১৫:৫১ ১৯ জুন ২০২২

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যায় আটকে পড়া ছয়টি পরিবারের ২৬ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেল ৫টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত ৪ ঘণ্টা ফায়ার সার্ভিস, জনপ্রতিনিধি, স্কাউট সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবকদের নিয়ে শ্বাসরুদ্ধকর এ অভিযান চালানো হয়। উদ্ধার অভিযানে নেতৃত্ব দেন ঝিনাইগাতীর ইউএনও ফারুক আল মাসুদ।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার গভীর রাত থেকে ভারী বর্ষণ ও উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ঝিনাইগাতী উপজেলার মহারশি ও সোমেশ্বরী নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। নদীর পানি উপচে ঝিনাইগাতী সদর ইউনিয়নের ঝিনাইগাতী, রামেরকুড়া, খৈলকুড়া, বনকালি, চতল ও আহম্মদ নগর; ধানশাইল ইউনিয়নের ধানশাইল, বাগেরভিটা, কান্দুলী, বিলাসপুর ও মাদারপুর; কাংশা ইউনিয়নের বিষ্ণুপুর চরণতলা, আয়নাপুর, কাংশাসহ নিম্নাঞ্চলের ৩০টি গ্রাম প্লাবিত হয়।

ঝিনাইগাতী সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শাহাদৎ হোসেন জানান, রামেরকুড়া এলাকায় মহারশি নদীর বাঁধ ভেঙে পানি প্রবেশ করে। হঠাৎ পাহাড়ি ঢলের পানি প্রবেশ করায় ছয়টি পরিবার বাড়ি থেকে বের হতে পারেনি। ঐ পরিবারগুলোতে বৃদ্ধ, অন্তঃসত্ত্বা, শিশুসহ ২৬ জন সদস্য রয়েছেন। দিনভর আটকে থাকায় এবং পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় তারা ঝুঁকির মুখে পড়ে। এমন পরিস্থিতে খবর পেয়ে ইউএনও ফারুক আল মাসুদ ঘটনাস্থলে যান এবং আটকে পড়া ২৬ জনকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেন।

এছাড়া দিনব্যাপী প্লাবিত এলাকাগুলো পরিদর্শন এবং ভুক্তভোগীদের খোঁজ-খবর নেন ইউএনও ফারুক আল মাসুদ, উপজেলা প্রকৌশলী শুভ বসাক, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী রাধা বল্লভ সরকার প্রমুখ।

ঝিনাইগাতী ফায়ার সার্ভিসের সদস্য আব্দুল মান্নান বলেন, ঢলের পানিতে আটকে পড়া পরিবারগুলোকে জনপ্রতিনিধি ও স্বেচ্ছাসেবকদের সহযোগিতায় উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে সরানো হয়েছে।

ঝিনাইগাতীর ইউএনও ফারুক আল মাসুদ বলেন, পাহাড়ি ঢলে আটকে পড়া ৬টি পরিবারের ২৬ জনকে উদ্ধার করে নিরাপদ স্থানে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তাদের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ করা হচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর/জেএইচ

English HighlightsREAD MORE »