রোহিঙ্গা শিবিরে ৫৬ মাসে ৯১ ধর্ষণ মামলা

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২,   ২০ আষাঢ় ১৪২৯,   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

রোহিঙ্গা শিবিরে ৫৬ মাসে ৯১ ধর্ষণ মামলা

কক্সবাজার প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:০৩ ২৩ মে ২০২২   আপডেট: ১৫:৪৭ ২৩ মে ২০২২

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

কক্সবাজারের উখিয়া-টেকনাফের ৩৪টি রোহিঙ্গা শিবিরে গত চার বছর ৮ মাসে ২ শতাধিক ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে মামলা হয়েছে মাত্র ৯১টি। শতাধিক ধর্ষণের অভিযোগ রোহিঙ্গা নেতারা স্থানীয়ভাবে নিষ্পত্তি করেছেন।

এ বিষয়ে ডেইলি বাংলাদেশকে কুতুপালংয়ের একটি ক্যাম্পের হেড মাঝি আনোয়ার হোসেন বলেন, ঘন বসতিপূর্ণ ঝুপড়ি ঘরে অনেক লোককে একসঙ্গে থাকতে হয়। বেকার নারী পুরুষ এক জায়গায় থাকতে গেলে নানা রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে। অপরাধের ধরন দেখে আমরা নিষ্পত্তি করার চেষ্টা করি। নিয়ন্ত্রণের বাইরে গেলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সাহায্য চাই।

কুতুপালং ২নং ক্যাম্পের হেড মাঝি সিরাজুল মোস্তফা বলেন, কম বয়সী নারীদের নানা প্রলোভনে ফেলে বখাটেরা ধর্ষণ করে। শুধু তাই নয়, বিয়ের প্রলোভনে অনেক রোহিঙ্গা যুবক যুবতীদের টার্গেট করে দলবেঁধে ধর্ষণ করে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০১৭ সালের আগস্ট থেকে চলতি বছরের মে পর্যন্ত গত ৫৬ মাসে ৯১টি ধর্ষণ মামলায় ২২৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। টেকনাফ থানায় ৩২টি, উখিয়া থানায় ৪৩টি, রামু থানায় ৭টি ও কক্সবাজার সদর মডেল থানায় ৯টি মামলা হয়েছে।

টেকনাফ থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতার ফলে রোহিঙ্গা ক্যাম্প ভিত্তিক ধর্ষণের অভিযোগ অনেকাংশে হ্রাস পেয়েছে। তবে ইয়াবা পাচার, মানব পাচার, ছিনতাই ও ডাকাতি বাড়ছে দিনদিন।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ সন্জুর মোর্শেদ বলেন, ১৩ লাখ রোহিঙ্গার মধ্যে প্রায় সাড়ে ৮ লাখ রোহিঙ্গা উখিয়া উপজেলায় বসবাস করছেন। অথচ উখিয়া উপজেলায় স্থানীয় লোকসংখ্যা প্রায় ২ লাখ। ফলে রোহিঙ্গারা ধর্ষণসহ বহুবিধ অপরাধের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছে।

তিনি বলেন, গত এক বছরে সাড়ে সাতশত রোহিঙ্গা নারী পুরুষকে নানা অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরমধ্যে ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন ৬৭ জন রোহিঙ্গা।

পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) এর তিনটি ইউনিটের অধীনে সাড়ে ৫০০ পুলিশ সদস্য কর্মরত রয়েছেন। পর্যায়ক্রমে এ সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে। পাশাপাশি র‍্যাব, গোয়েন্দা পুলিশ ও বিজিবি কাজ করছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ/এইচএন

English HighlightsREAD MORE »