মোবাইল কেড়ে নেয়ায় হাতে তিন নাম লিখে ফাঁস নিলেন স্কুলছাত্রী

ঢাকা, মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২,   ২০ আষাঢ় ১৪২৯,   ০৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

মোবাইল কেড়ে নেয়ায় হাতে তিন নাম লিখে ফাঁস নিলেন স্কুলছাত্রী

পাবনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:০২ ১২ এপ্রিল ২০২২  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়ায় মায়ের উপর অভিমান করে তানজিলা খাতুন (১১) নামের এক স্কুলছাত্রী গলায় আত্মহত্যা করেছে বলে দাবি করা হচ্ছে।

সোমবার পাবনার চাটমোহর উপজেলার ছাইকোলা ইউপির কাটেঙ্গা বউবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

তানজিলা খাতুন ঐ গ্রামের তফেজ উদ্দিনের মেয়ে। সে কাটেঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সোমবার সকালে দিকে মোবাইল হাতে নিয়ে তানজিলা স্কুলে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এটি দেখে তার মা রুপসী খাতুন মেয়ের হাত থেকে মোবাইল ফোন কেড়ে নেন এবং বকুনি দেন। এরপর মেয়েকে স্কুলে যেতে বলে তিনি বাড়ির বাইরে একটি কাজে চলে যান। দুপুরে বাড়ি ফিরে এসে দেখেন তানজিলা ঘরে ওড়না দিয়ে ফাঁস নিয়ে ঝুলছে। মেয়েকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে তিনি চিৎকার করে প্রতিবেশীদের ডেকে আনেন। প্রতিবেশীরা থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

চাটমোহর থানার ওসি মুহম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, স্কুলছাত্রীর মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে। 

তিনি আরো জানান, লাশের বাম হাতে তিনটি নাম লেখা আছে। এর মধ্যে দুটি অস্পষ্ট। একটি ছেলের নাম স্পষ্ট বোঝা গেছে।  তিনি জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ

English HighlightsREAD MORE »