মিলেমিশে থাকার শপথ নিল ১০ গ্রামের মানুষ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৬ মে ২০২২,   ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯,   ২৪ শাওয়াল ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

মিলেমিশে থাকার শপথ নিল ১০ গ্রামের মানুষ

ফরিদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:২৩ ২১ জানুয়ারি ২০২২  

দুই গ্রামবাসীর শপথ

দুই গ্রামবাসীর শপথ

মিলেমিশে থাকার শপথ করেছেন ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার শেখর ইউনিয়নের ১০টি গ্রামের মানুষ। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার তেলজুড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে এ সংক্রান্ত শান্তিসভা হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়নের তেলজুড়ী, রায়বর, দৈবকনন্দনপুর, নিধিপুর, দুর্গাপুর, বাজিতপুরসহ ১০ গ্রামের সব নেতা, মাতব্বর ও লোকজন।

ফরিদপুর জেলা পরিষদ সদস্য ও শেখর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন বোয়ালমারী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. সালাউদ্দন, জাহাঙ্গীর আলম মুকুল, শেখর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান রইসুল ইসলাম পলাশ, সৈয়দ সাকির আহমেদ সাকু, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খন্দকার ওমর হাফিজ মুক্তি, বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার ওলিয়ার রহমান প্রমুখ।

সভা শেষে উপস্থিত সবাইকে শপথ করানো হয়। শপথে তারা অঙ্গিকার করেন, আজ থেকে ১০ গ্রামে আর কোনো ঝগড়া, মামলা, কোনো ধরনের অশান্তি থাকবে না। যত মামলা আছে তা তুলে ফেলবো। ১০ গ্রামের মানুষ মামলা-হামলা ছাড়া শান্তিতে বসবাস করবো এবং সবাই মিলেমিশে থাকবো।

এদিকে, ফরিদপুরের নগরকান্দা উপজেলায়  কুমার নদের পাড়ের ১০টি বসত বাড়ি হঠাৎ দেবে গেছে। ভেঙে পড়েছে পাকা স্থাপনাও। পাড়জুড়ে দেখা দিয়েছে বড় ধরনের ফাটল। ফলে ভাঙন আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন নদের পাড়ে বসবাসরত ওই এলাকার বাসিন্দারা। বাড়ি থেকে সরিয়ে নিচ্ছেন আসবাবপত্র। 
সোমবার রাত থেকে শুরু হওয়া দেবে যাওয়ার এ ঘটনা চলে বুধবার পর্যন্ত। ঝুঁকিতে রয়েছে নগরকান্দা সরকারি এম এন একাডেমির ভবন, থানা ভবন ও বাজারের কেন্দ্রীয় কালি মন্দির ভবনসহ পৌর বাজার।  

স্থানীয়রা জানান, কিছুদিন আগেই সরকারিভাবে কুমার নদ খনন করা হয়। নৌ বাহিনীর তত্ত্বাবধায়নে কাজটি বাস্তবায়ন করেছে বেঙ্গল গ্রুপ। এর ফলেই বাড়ি ঘর দেবে যাওয়ার মতো এমন ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছেন তারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর

English HighlightsREAD MORE »