খাবারের সন্ধানে সামাজিক বনায়নে বন্যহাতির তাণ্ডব

ঢাকা, বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২,   ৫ মাঘ ১৪২৮,   ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

খাবারের সন্ধানে সামাজিক বনায়নে বন্যহাতির তাণ্ডব

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৫৬ ১৩ জানুয়ারি ২০২২  

সীমান্তবর্তী গারো পাহাড়ে বন্যহাতির তাণ্ডবে বন বিভাগের সামাজিক বনায়নের ব্যাপক ক্ষতি ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সীমান্তবর্তী গারো পাহাড়ে বন্যহাতির তাণ্ডবে বন বিভাগের সামাজিক বনায়নের ব্যাপক ক্ষতি ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার সীমান্তবর্তী গারো পাহাড়ে বন্যহাতির তাণ্ডবে বন বিভাগের সামাজিক বনায়নের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। 

বুধবার রাতে উপজেলার বাতকুচি বন বিটের দাওধারা কাটাবাড়ী এলাকায় এ তাণ্ডব চালায় বন্যহাতির পাল। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় দাওধারা কাটাবাড়ী সীমান্ত এলাকার উডলট বাগানে বন্যহাতি অবস্থান করছে বলে বন বিভাগ জানায়। 

জানা গেছে, প্রায় ৪০-৫০টি বন্যহাতির দল খাবারের সন্ধানে উপজেলার মধুটিলা ফরেষ্ট রেঞ্জের বাতকুচি বন বিটের দাওধার কাটাবাড়ী পাহাড়ে নেমে আসে। পর্যাপ্ত খাদ্য না পেয়ে বন বিভাগের ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে রোপণ করা সামাজিক বনায়নের আকাশমনি গাছ শুর দিয়ে পেঁচিয়ে ও পা দিয়ে মাড়িয়ে ভেঙে গুড়িয়ে দেয়। 

এছাড়া ২০১৯-২০ অর্থ বছরে সৃজিত সুফল বাগানে তাণ্ডব চালিয়ে সদ্য রোপণ করা আমলকি, হরতকী ও বহেরাসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ পা দিয়ে মাড়িয়ে নষ্ট করে দিয়েছে। এতে প্রায় ৩০-৩৫ হেক্টর বাগানের গাছ নষ্ট করে ৮-১০ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি করেছে বলে বন বিভাগ জানায়। 

স্থানীয়রা আরো জানান, প্রায় দুই যুগ ধরে শেরপুর জেলার সীমান্তবর্তী গারো পাহাড়ে বন্যহাতি তাণ্ডব চালিয়ে জানমালের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে আসলেও সরকারিভাবে কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে না। 

এ ব্যাপারে বন বিভাগের মধুটিলা ফরেস্ট রেঞ্জ কর্মকর্তা আব্দুল করিম জানান, বন্যহাতির তাণ্ডবে সামাজিক বনায়নের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বন্যহাতিকে নিরাপদ রেখে কিভাবে মানুষ, বন ও বাগান রক্ষা করা যায় সেই পদক্ষেপ নিচ্ছি। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে

English HighlightsREAD MORE »