পরীক্ষা ছাড়াই দেওয়া হলো নেগেটিভ সার্টিফিকেট

ঢাকা, শুক্রবার   ২১ জানুয়ারি ২০২২,   ৮ মাঘ ১৪২৮,   ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

পরীক্ষা ছাড়াই দেওয়া হলো নেগেটিভ সার্টিফিকেট

শরীফা খাতুন শিউলী, খুলনা ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৪৯ ৮ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৮:৫৭ ৮ ডিসেম্বর ২০২১

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

খুলনায় বিদেশগামীদের নমুনা পরীক্ষা না করেই করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এমন তিনজনের সার্টিফিকেট পাওয়া গেছে। তারা মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) নমুনা দিয়েছেন। অথচ সোমবার (৬ ডিসেম্বর) করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট পেয়েছেন।

এ বিষয়ে খুলনার সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ বলেন, বিষয়টি জানতে পেরেছি। বিস্তারিত খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খুমেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ল্যাব ইনচার্জ মো. রওশন আলী বলেন, বিদেশগামীরা করোনা পরীক্ষার জন্য আগে ফরম সংগ্রহ করেন। ফরম পূরণ করে নমুনা দেওয়ার জন্য এক হাজার ৫০০ টাকা ফি দিতে হয় তাদের। পরে জেনারেল হাসপাতালে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ফরোয়ার্ডিংসহ এ নমুনা পরদিন সকাল ১০টার মধ্যে খুলনা মেডিক্যাল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। নমুনা পাঠানোর আগে কীভাবে বিদেশগামীরা করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট পেলেন, এটি বোধগম্য নয়। এ সম্পর্কে খুমেকে কর্তৃপক্ষ সঠিক তথ্য দিতে পারবেন। আমাদের দায়িত্ব শুধু নমুনা পাঠানো।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালে গত মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) ১৬০ জন বিদেশগামীর করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এদের মধ্যে ভারতে যাওয়ার জন্য শান্তি বালা, রবিন চন্দ্র লস্কর ও শ্রীবাছ লস্কর নমুনা দিয়েছেন। নিয়ম অনুযায়ী এই তিনজনের নমুনা বুধবার (৮ ডিসেম্বর) খুলনা মেডিক্যাল কলেজের ল্যাবে পৌঁছানোর কথা। কিন্তু খুলনা মেডিক্যাল কলেজের ওয়েবসাইটে কোভিড-১৯ পরীক্ষার প্রকাশিত রিপোর্টে দেখা যায়, শান্তি বালা, রবিন চন্দ্র লস্কর ও শ্রীবাছ লস্করের নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৫ ডিসেম্বর এবং নমুনা পরীক্ষার সময় ৬ ডিসেম্বর। তাদের করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট প্রস্তুত হয়ে গেছে।

এ ব্যাপারে খুলনা মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি ডিপার্টমেন্টের প্রধান ডা: শাহনাজ পারভীনকে একাধিক বার ফোন করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএডি

English HighlightsREAD MORE »