আজাদ মৌলভীর জানাজার পাশে বসে কাঁদলেন ভিন্ন ধর্মের প্রতিবেশীরা

ঢাকা, সোমবার   ১৭ জানুয়ারি ২০২২,   ৩ মাঘ ১৪২৮,   ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আজাদ মৌলভীর জানাজার পাশে বসে কাঁদলেন ভিন্ন ধর্মের প্রতিবেশীরা

নাটোর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:৩১ ৩ ডিসেম্বর ২০২১   আপডেট: ২১:৩৮ ৩ ডিসেম্বর ২০২১

আজাদ মৌলভীর জানাজার পাশে বসে কাঁদলেন ভিন্ন ধর্মের প্রতিবেশীরা ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

আজাদ মৌলভীর জানাজার পাশে বসে কাঁদলেন ভিন্ন ধর্মের প্রতিবেশীরা ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার ব্রহ্মপুর ইউপির চেঁউখালি গ্রামের আজাদ মৌলভী (৫২) মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

শুক্রবার চেঁউখালি কেন্দ্রীয় গোরস্থান মাঠে ৫২ বছর বয়সী আজাদ মৌলভীর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

মৃত্যুর পর অনুষ্ঠিত জানাজায় উপস্থিত মুসল্লিরা যখন জানাজার কাতারে দাঁড়িয়ে যান, তখন ভিন্ন ধর্মের প্রতিবেশীরা অশ্রুভেজা চোখে এক ধ্যানে তাকিয়ে আছে চিরচেনা প্রিয় মানুষ আজাদ মৌলভীর জানাজার দিকে। ছোট বেলা থেকে সুখে দুঃখে এক সঙ্গে বাস করা আজাদ মৌলভীর হঠাৎ মৃত্যুতে তারা গভীরভাবে শোকাহত।

ধর্মের দূরত্ব থাকলেও মানুষ হিসেবে সে দূরত্ব যেন আজ কিছুই নয়। প্রতিবেশীর চিরবিচ্ছেদে ভারাক্রান্ত হৃদয় তখন শুধুই এক হাহাকার। 

ভিন্ন ধর্মের হয়েও মুসলিম কারো মৃত্যুতে তাদের কষ্টভরা এমন অনুভূতি নিয়ে জানাজার পাশে হতবাক হয়ে বসে থাকার বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে চেঁউখালি ঝুপদুয়ার গ্রামের গোবিন্দ প্রাং বলেন, আজাদ কাকা খুব ভালো মানুষ ছিলেন। তিনি একজন মৌলভী হয়েও আমাদেরকে সবসময় স্নেহ ভালোবাসা ও সম্মান দিয়েছেন। ধর্মীয় কারণে তার জানাজায় দাঁড়ানোর সুযোগ নেই বলে দূরে বসে তাকে বিদায় জানিয়েছি।

একই গ্রামের নৃত্যনন্দ ছলছল জলভরা চোখে বলেন, আজাদ ভাইয়ের মৃত্যুতে আমরা শোকাহত, তার বিদায়বেলা উপস্থিত থাকাটা আমার মানবিক দায়িত্ব।

নলডাঙ্গা ইউএনও সুখময় সরকার ও নলডাঙ্গা উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম সরদার বলেছেন, ধর্মীয় উন্মাদনায় যখন পৃথিবীর চারিদিকে আগুন আর রক্তপাত, সেখানে আজকের এই দৃশ্যটা যেন মানবতার পথে অন্যরকম এক উদাহরণ। মানুষে মানুষে এমন সম্প্রীতি, এ যেন সত্যিকার অর্থেই মানুষের বিজয়। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে

English HighlightsREAD MORE »