আখাউড়ায় ১২ পুরুষের বিরুদ্ধে লড়ছেন ১ নারী

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২২,   ১৩ মাঘ ১৪২৮,   ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

আখাউড়ায় ১২ পুরুষের বিরুদ্ধে লড়ছেন ১ নারী

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) থেকে ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:৫৩ ৩০ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৮:০২ ৩০ নভেম্বর ২০২১

শারমিন সুলতানা: ফাইল ফটো

শারমিন সুলতানা: ফাইল ফটো

এক নারীর পেছনে ১২ পুরুষ। এ কথা এখন ভেসে বেড়াচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার ধরখার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রচার প্রচারণায়। আগামী ২৬ ডিসেম্বর এ ইউনিয়নে নির্বাচন হবে।

এ ইউপিতে ১৩ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনে ১২ পুরুষ প্রার্থীর সঙ্গে শারমিন সুলতানা (লাকী আক্তার) নামে এক নারীর প্রতিদ্বন্দ্বিতা এরই মধ্যে বেশ জমে উঠেছে। নারী প্রার্থী  নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় এলাকায় বেশ কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে। এলাকায় পাড়া মহল্লায়, দোকানপাট হাট বাজারে সর্বত্রই এ নিয়ে আলোচনার ঝড় বইছে। 

এদিকে সব প্রার্থীরাই যার যার অবস্থান তৈরি করে কৌশলে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। দিচ্ছেন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতিও।

শারমিন সুলতানা ধরখার এলাকার তুলাতলা গ্রামের হাজি আবু তাহের ভূইয়ার মেয়ে। তার এক ছেলে এক মেয়ে রয়েছে। তাছাড়া তিনি আখাউড়া উপজেলা যুব মহিলা লীগের একজন কর্মী ও বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের মহিলা সম্পাদিকা।

শারমিন সুলতানার কর্মী ও সমর্থকদের দাবি, ভোটারদের সমর্থনের দিক থেকে এখন পর্যন্ত ১২ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী শারমিন সুলতানার পেছনে রয়েছে।

চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী অন্য প্রার্থীরা হলেন মো. আরিফুল হক বাছির, গোলাম সামদানী ফেরদৌস, খন্দকার মো. আব্দুর রৌফ, মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম, মো. সাফিকুল ইসলাম, ইয়াকুব রহমান, মোহাম্মদ সারোয়ার আলম, খন্দকার মাসুদুল আমিন, শেখ আব্দুর রহমান, মো. শাহিন মোল্লা, শেখ শরীফ উদ্দিন আহমেদ মো. সেলিম মিয়া। 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে  প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ১৬ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। পরে যাচাইবাছাই শেষে ৩ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র অবৈধ ঘোষণা করে নির্বাচন অফিস। শেষ পযর্ন্ত ১৩ জন প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ হয়। এরমধ্যে একমাত্র নারী প্রার্থী হলেন শারমিন সুলতানা।

চেয়ারম্যান প্রার্থী শারমিন সুলতানা বলেন, নারী-পুরুষ সমান অধিকার। দেশের উন্নয়নে সমাজ গঠনে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের ভূমিকাও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। নারীদেরকে অবহেলার কোনো সুযোগ নেই। নারীসহ এলাকার সার্বিক উন্নয়নের কথা চিন্তা করে তিনি প্রার্থী হয়েছেন। তাই নারী প্রার্থী হওয়ায় সব নারীরা আমার পক্ষে মাঠে নেমে তারা কাজ করছেন। তবে এলাকার নারী পুরুষ ভোটারদেরও ব্যাপক সাড়া পাচ্ছেন। 

তিনি আরো বলেন, প্রতিদিনই তার কর্মী সমর্থক নিয়ে গ্রামে গ্রামে নিরলসভাবে গণসংযোগ উঠান বৈঠক করে যাচ্ছেন। গ্রামের গণ্যমান্যসহ সবস্তরের লোকজন আমাকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করছেন। এলাকার ভোটাররা আমাকে যেভাবে মূল্যায়ন করছেন আশা করছি আমি বিপুল ভোটের ব্যবধানে জয়লাভ করব। 

নোয়ামোড়া গ্রামের আব্দুল হাকিম বলেন, নোয়ামোড়া ঈদিলপুর ঝিকুটিয়া এলাকা থেকে কোনো সময় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করেননি কেউ। সাহস করে এবার চেয়ারম্যান পদে শারমিন সুলতানা নামে এক নারী  নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এটা আমাদের ভাগ্যের ব্যাপার। আমাদের প্রার্থীকে বিজয় করতে মাঠে নেমে কাজ করছি।

আখাউড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জাসিদুল ইসলাম ডেইলি বাংলাদেশকে বলেন , আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এ উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। এরই মধ্যে মনোনয়নপত্র যাচাই-বাচাই প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে। আগামী  ৬ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময়।

তিনি আরো বলেন, ধরখার এলাকায় মোট ভোটার সংখ্যা হলো ২৬ হাজার ১০টি। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ১৩ হাজার ৪৭১ ও নারী ভোটার ১২ হাজার ৫৩৯। নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখতে এবং অবাধ ও নিরপেক্ষ একটি নির্বাচন উপহার দিতে যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করা হচ্ছে।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ

English HighlightsREAD MORE »