বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে যুবদলের মশাল মিছিল

ঢাকা, বুধবার   ২৬ জানুয়ারি ২০২২,   ১২ মাঘ ১৪২৮,   ২১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

Beximco LPG Gas

বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে যুবদলের মশাল মিছিল

বগুড়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০০ ২৮ নভেম্বর ২০২১   আপডেট: ১৬:২৩ ২৮ নভেম্বর ২০২১

মশাল মিছিল

মশাল মিছিল

বিদ্যুৎ বিভাগের সঙ্গে যোগসাজশে বগুড়া শহরে বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে মশাল মিছিল করার অভিযোগ উঠেছে যুবদলের বিরুদ্ধে।

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে সুচিকিৎসার দাবিতে বগুড়া জেলা যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুকুল ইসলাম ফারুকের নেতৃত্বে শহরের বড়গোলা-দত্তবাড়ি এলাকায় মশাল মিছিল করা হয়। 

মঙ্গলবার রাতের ঐ ঘটনা প্রসঙ্গে জেলা যুবদলের আহ্বায়ক খাদেমুল ইসলাম খাদেম বলেন, ফারুক বহিষ্কৃত নেতা, তাই ঐ মিছিল সম্পর্কে আমরা কোনো মন্তব্য করব না।

বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ প্রশ্নে নর্দান ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি-২ (নেসকো) নির্বাহী প্রকৌশলী ওমর ফারুক জানান, ঐ এলাকায় কোনো লোডশেডিংয়ের শিডিউল ছিল না। তবে দত্তবাড়ি এলাকায় খুঁটিতে ফিউজ মেরামত করার জন্য স্টাফরা শিববাটি সরবরাহ কেন্দ্র থেকে কিছু সময়ের জন্য বিদ্যুৎ বন্ধ করেছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত ২৩ নভেম্বর রাত পৌনে ৮টার দিকে শহরের ঝাউতলায় একটি গলির মধ্যে জেলা ও শহর যুবদলের অন্তত ৬০ নেতাকর্মী সমবেত হন। তারা সেখানে বাঁশের মশাল নিয়ে অবস্থান করতে থাকেন। এ সময় হঠাৎ করে নেসকো-২ এর আওতাভুক্ত শহরের বড়গোলা ও দত্তবাড়ি এলাকায় বিদ্যুৎ চলে যায়। 

তখন বগুড়া জেলা যুবদলের বহিষ্কৃত সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ফারুকুল ইসলাম ফারুকের নেতৃত্বে ব্যানার নিয়ে মশাল মিছিল বের করা হয়। সেখান থেকে বড়গোলা হয়ে মিছিল দত্তবাড়ির দিকে চলে যায়। মিছিল থেকে খালেদা জিয়ার মুক্তি ও বিদেশে চিকিৎসার দাবি জানানো হয়। এছাড়া খালেদা জিয়ার কিছু হলে ঘরে ঘরে আগুন জ্বলবেসহ বিভিন্ন স্লোগান দেওয়া হয়। মিছিলকারীরা দত্তবাড়িতে মশালগুলো ফেলে চেলোপাড়া ও কাটনারপাড়ার দিকে চলে যান। এরপরপরই বিদ্যুৎ সরবরাহ স্বাভাবিক হয়। 

অনেক দিন পর শহরে মশাল মিছিল দেখে পথচারী ও এলাকাবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। অনেকে মন্তব্য করেন- যুবদলের নেতারা বিদ্যুৎ বিভাগের সরকারবিরোধী কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সহযোগিতায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করে মশাল মিছিল করেছেন।

সদর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, সাবেক যুবদল নেতাকর্মীরা হঠাৎ করে কয়েক মিনিটের জন্য মশাল মিছিল বের করেছিলেন। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম/এইচএন

English HighlightsREAD MORE »