প্রতারক চক্রের অভিনব ফাঁদে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন বৃদ্ধ 

ঢাকা, সোমবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২২ ১৪২৮,   ২৯ রবিউস সানি ১৪৪৩

প্রতারক চক্রের অভিনব ফাঁদে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন বৃদ্ধ 

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:১৯ ২৭ অক্টোবর ২০২১  

প্রতারক চক্রের অভিনব ফাঁদে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন বৃদ্ধ 

প্রতারক চক্রের অভিনব ফাঁদে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন বৃদ্ধ 

ময়মনসিংহের নান্দাইলে প্রতারক চক্রের অভিনব ফাঁদে পড়ে ৫০ হাজার টাকা খুইয়ে জ্ঞান হারিয়ে হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন আবদুল মান্নান নামে এক বৃদ্ধ। 

তিনি নান্দাইল পৌর সদরের চারিআনি মহল্লার মৃত কমর উদ্দিনের পুত্র। 

প্রত্যক্ষদর্শী আল-আমীন জানান, বুধবার আব্দুল মান্নান দুপুর একটার দিকে পারিবারিক প্রয়োজনে নান্দাইল বাজারস্থ সোনালী ব্যাংক শাখা থেকে ৫০ হাজার টাকা তোলে বাসায় ফিরছিলেন। মধ্যে বাজারে আসতেই এক যুবক তার কাছে গিয়ে বলেন, আমি আপনার মেয়ের জামাইয়ের ভাই সুমন আমাকে ৭০ হাজার  টাকা দিতে বলেছেন। বলা মাত্রই তিনি ৫০ টাকা দিয়ে দেন। 

যখন তিনি বুঝতে পারেন ৭০ হাজার টাকা কেন চাইলো? তখন বাড়িতে স্ত্রী জোছনা আরার কাছে ফোনে ঘটনা জানান বৃদ্ধ। তার স্ত্রী জানান, ‘এমন নামে আমাদের কোনো আত্নীয় নেই তুমি কেন তাকে টাকা দিয়ে দিলা।’

এ কথা শুনেই মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বৃদ্ধ আব্দুল মান্নান। পরে তাকে দ্রুত নান্দাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে ভর্তি করা হয়। 

মান্নানের স্ত্রী জোছনা আরা বলেন, নান্দাইল সোনালী ব্যাংক শাখায় আমার নিজ নামে একাউন্ট রয়েছে। একান্ত জরুরি পারিবারিক প্রয়োজনে স্বামীকে ৫০ হাজার টাকার চেক লিখে পাঠাই। তিনি টাকা তোলে ফেরার পথে প্রতারক চক্র টাকা নিয়ে পালিয়েছে। স্বামী এখন জ্ঞান হারিয়ে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। প্রশাসনের কাছে টাকা উদ্ধারে প্রয়োজনীয় সহযোগিতা কামনা করছি। আমার স্বামী কিছুটা সুস্থ হলে থানায় অভিযোগ দেয়া হবে। 

এ বিষয়ে নান্দাইল মডেল থানার ওসি মিজানুর রহমান আকন্দ জানান, আমাদের কাছে কেউ এ বিষয়ে অভিযোগ দেয়নি। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে