হকার জুবায়ের হোসেন হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি গ্রেফতর 

ঢাকা, সোমবার   ২৯ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৮,   ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

হকার জুবায়ের হোসেন হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি গ্রেফতর 

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:১৬ ২৭ অক্টোবর ২০২১  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

নারায়ণগঞ্জ শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে ফুটপাতে দোকান বসানোকে কেন্দ্র করে হকার জুবায়ের হোসেন হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামি ইকবালকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। 

বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান, র‍্যাব ১১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল তানভীর মাহমুদ পাশা। 

তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংগ্রহসহ ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদ্ঘাটন ও ঘটনায় জড়িত প্রধান আসামি ইকবালসহ অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারে র‍্যাব- ১১ এর একটি গোয়েন্দা দল ছায়া তদন্ত শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৬ অক্টোবর র‍্যাব-১১ ও র‍্যাব-৮ এর একটি যৌথ আভিযানিক দল বরিশাল জেলার উজিরপুর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে নিহত জুবায়ের হোসেন হত্যা মামলার প্রধান আসামি ইকবালকে গ্রেফতার করে। 

ইকবাল সোনারগাঁও বুরুমদীর আব্দুস সামাদের ছেলে। প্রাথমিক অনুসন্ধান ও গ্রেফতারকৃত আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে সাধু পৌলের গির্জার সামনে ফুটপাতে সাদেকের জুতার দোকানে চাকরি করতো জুবায়ের। ফুটপাতে দোকান বসানো নিয়ে হকার স্বপনের সঙ্গে ভিকটিম জুবায়েরের বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে স্বপন নিজেই জোবায়েরকে বলাকা পেট্রোল পাম্পের সামনে নিয়ে চর থাপ্পড় মারতে থাকে। 

পরবর্তীতে ভিকটিম জুবায়ের এর প্রতিবাদ করলে হকার নেতা আসাদের হুকুমে মামলার প্রধান আসামি ইকবাল মহসিনের দোকান থেকে ধারালো চাকু এনে জুবাযেরকে কুপিয়ে জখম করে এবং অন্যান্য আসামিরাও জুবায়েরকে মারধর করে পালিয়ে যায়। 

হত্যাকাণ্ডে জড়িত অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারে র‍্যাব-১১ এর অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 

গত ১৪ অক্টোবর শহরের বঙ্গবন্ধু সড়কে বলাকা পেট্রোল পাম্পের সামনে ফুটপাতে দোকান বসানোকে কেন্দ্র করে হকার জুবায়েরকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। নিহত জুবায়ের ফতুল্লার উত্তর মাসদাইরের আমজাদ হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় নিহত জুবায়েরের মা মুক্তা বাদী হয়ে ইকবালকে প্রধান আসামি করে ৮ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৫ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।  

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে