নতুন ভবনে ছাত্রীর গলাকাটা লাশ, পাশেই নাড়িভুঁড়ি বের হওয়া কিশোর

ঢাকা, রোববার   ২৮ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৫ ১৪২৮,   ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

নতুন ভবনে ছাত্রীর গলাকাটা লাশ, পাশেই নাড়িভুঁড়ি বের হওয়া কিশোর

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:৫৪ ২৭ অক্টোবর ২০২১  

ঘটনাস্থলে স্থানীয়দের ভিড়

ঘটনাস্থলে স্থানীয়দের ভিড়

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে এক স্কুলছাত্রীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় আরো একজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার সকালে উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার এলেঙ্গা শামসুল হক কলেজের সামনে নবনির্মিত ভবন থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত ১৫ বছর বয়সী সুমাইয়া উপজেলার পালিমা গ্রামের ফেরদৌস রহমানের মেয়ে। তিনি এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী। আহত ১৭ বছর বয়সী মনির হোসেন একই উপজেলার ভাবলা গ্রামের মেহের আলীর ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, সকালে বিদ্যালয়ের পার্শ্ববর্তী প্রাইম কোচিং সেন্টারে যাওয়ার জন্য বের হন সুমাইয়া। এ সময় তার সঙ্গে মনিরও ছিলেন। এ সময় দুর্বৃত্তরা সুমাইয়াকে শামসুল হক কলেজের সামনে নবনির্মিত ভবনে নিয়ে হত্যা করে চলে যায়।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. রাজীব পাল চৌধুরী বলেন, গুরুতর অবস্থায় মনির নামে এক কিশোরকে হাসপাতালে আনা হয়। তার অবস্থা সংকটাপন্ন। তাকে ভর্তি করা হয়েছে। তার বুকে ধারালো কিছু দিয়ে আঘাত করায় নাড়িভুঁড়ি বের হয়ে গেছে। এছাড়া তার ঘাড়ে দুটি কোপ দেওয়া হয়েছে।

কালিহাতী থানার ওসি মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, সকালে শামসুল হক কলেজের সামনে নবনির্মিত ভবনে কিশোরীর গলাকাটা লাশ ও কিশোরকে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে কিশোরীর লাশ উদ্ধার করা হয়। জীবিত থাকায় ওই কিশোরকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক। আহত ম‌নির পরিবহন শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর