থানা হাজতের গ্রিল ভেঙে পালাল আসামি, দুই পুলিশ ক্লোজ

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৮,   ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩

পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে হাজতের গ্রিল ভেঙে পালাল আসামি

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২১:২৫ ২৬ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ২১:২৬ ২৬ অক্টোবর ২০২১

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

দিন দুপুরে পার্বতীপুর মডেল থানা হাজতের জানালার গ্রিল ভেঙে পালিয়েছে ওয়ারেন্টের এক আসামি। এ ঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার কারণে ডিউটি অফিসার কেবিএম শাহারিয়ার ও পুলিশ কনেস্টবল সাবিনা ইয়াছমিনকে তাৎক্ষণিক দিনাজপুর পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি জানাজানি হলে দিনাজপুর জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মমিনুল করিম ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফুলবাড়ী সার্কেল আসাদুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

জানা যায়, একটি ওয়ারেন্ট ভুক্ত মামলার আসামি মোকারুল ইসলামকে (৩২) রাত ১২টার দিকে উপজেলার হাবড়া ইউপির ভবানীপুর এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে রাতেই আসামি মোকারুল ইসলামকে পার্বতীপুর মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়। মঙ্গলবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে হাজতখানার জানালার তিনটি গ্রিল ভেঙে ফেলে কৌশলে পালিয়ে যায় আসামি। 

পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মো. ইমাম জাফর জানান, থানা হাজতে ছিল আসামি। পুলিশের আগোচরে হাজত খানার পাশের দরজার তালা ভেঙে স্টোর রুমে প্রবেশ করে। পরে স্টোর রুমের গ্রিল কেটে পালিয়ে যায়। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পার্বতীপুর-ফুলবাড়ী সার্কেল আসাদুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় পুলিশের দায়িত্বে অবহেলার কারণে পুলিশের উপ-সহকারী পরিদর্শক কেবিএম শাহরিয়ার ও কনস্টেবল সাবিনা ইয়াছমিনকে দিনাজপুর পুলিশ লাইনে ক্লোজ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে