‘পৃথিবী’র মুখে ছুড়ে মারল গরম চা, ঝলসে গেল কপাল

ঢাকা, বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৮ ১৪২৮,   ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

‘পৃথিবী’র মুখে ছুড়ে মারল গরম চা, ঝলসে গেল কপাল

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৪৩ ২৬ অক্টোবর ২০২১  

পৃথিবী হালদার

পৃথিবী হালদার

রাজশাহীর বাঘায় গরম চা ছুড়ে মেরে পৃথিবী হালদার নামে এক তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রকে ঝলসে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় সোমবার একটি লিখিত অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী ছাত্রের বাবা মিন্টু হালদার।

জানা গেছে, উপজেলার আড়ানী বাজারে চা বিক্রি করেন ৪৫ বছর বয়সী মিন্টু হালদার। স্কুলে যাওয়ার আগে তার তৃতীয় শ্রেণিতে পড়া ১০ বছরের ছেলে পৃথিবী হালদার দোকানে এসে বাবাকে সহযোগিতা করে। গত শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে কাপড় ব্যবসায়ী ইমন হোসেনের দোকানে চা দিতে যায় পৃথিবী। এ সময় শিশুটির কাছে চা চান পাশের দোকানে বসে থাকা ৩৫ বছর বয়সী সুইট হোসেন। আরেক দোকানের অর্ডার আছে বলে চা দিতে দেরি হবে বলে জানায় শিশুটি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চায়ের কাপ কেড়ে নিয়ে পৃথিবীর কপালে ছুড়ে মারেন তিনি।

এতে শিশু পৃথিবী হালদারের কপাল, নাক, হাত ঝলসে যায়। সুইট হোসেন আড়ানী পিয়াদাপাড়া গ্রামের সাদু প্রামাণিকের ছেলে। ঝলসে যাওয়া শিশুকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে শিশু পৃথিবীর বাবা মিন্টু হালদার বলেন, বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়ভাবে বসে আপস করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সুইট হোসেন এতে রাজি হননি। নিরুপায় হয়ে ঘটনার তিনদিন পর থানায় অভিযোগ করেছি।

বাঘা থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেন জানান, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর