জলপাই গাছের নিচে পুত্রবধূর রক্তাক্ত লাশ, শাশুড়ি নতুন বাড়িতে

ঢাকা, বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২৪ ১৪২৮,   ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

জলপাই গাছের নিচে পুত্রবধূর রক্তাক্ত লাশ, শাশুড়ি নতুন বাড়িতে

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:১৬ ২২ অক্টোবর ২০২১  

মধুপুর থানা, টাঙ্গাইল

মধুপুর থানা, টাঙ্গাইল

টাঙ্গাইলের মধুপুরে বাড়ির পাশের জলপাই গাছের নিচ থেকে ইয়াসমিন নামে এক গৃহবধূর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঐ উপজেলার কুড়াগাছা ইউনিয়নের গরম বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইয়াসমিন কুড়াগাছা ইউনিয়নের ধরাটি টানপাহাড় এলাকার নুরুন্নবীর স্ত্রী। দুর্বৃত্তরা তাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামীকে আটক করা হয়েছে।

নিহতের চাচা জুলহাস উদ্দিন জানান, ধরাটি টানপাহাড় গ্রামের হাসু মিয়ার ছেলে নুরুন্নবীর সঙ্গে পারিবারিকভাবেই বিয়ে হয় একই এলাকার আব্দুল লতিফ মৃধার মেয়ে ইয়াসমিনের। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই পারিবারিক কলহের জেরে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তার ওপর নির্যাতন চালাতে শুরু করে। ইয়াসমিনের একটি ছেলেসন্তান রয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বেলা ১১টার দিকে বাড়ির পাশের একটি জলপাই গাছের নিচে রক্তাক্ত অবস্থায় ইয়াসমিনের অচেতন দেহ পড়ে থাকতে দেখে প্রতিবেশীরা। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের শাশুড়ি নূরজাহান বেগম বলেন, আমাদের নতুন বাড়ির কাজ চলছিল। আমি সেখানেই ছিলাম। ঐ সময় আমার ছেলের বউ বাড়িতে একাই ছিল। কে বা কারা তাকে হত্যা করেছে আমি জানি না।

মধুপুর থানার ওসি তারিক কামাল জানান, খবর পেয়ে নিহতের বাবা থানায় গিয়ে মামলা করেছেন। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী নুরুন্নবীকে আটক করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডেররহস্য উদঘাটনে এরই মধ্যে  মাঠে নেমেছে পুলিশ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর

English HighlightsREAD MORE »