যথাসময়ে চিকিৎসা দেওয়ায় মারা গেলেন টেক্সটাইল মিলের বিদ্যুৎস্পৃষ্ট

ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৬ ১৪২৮,   ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

যথাসময়ে চিকিৎসা না দেওয়ায় মারা গেলেন টেক্সটাইল মিলের বিদ্যুৎস্পৃষ্ট শ্রমিক

নরসিংদী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:৫৬ ১৯ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ১৯:০১ ১৯ অক্টোবর ২০২১

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট: প্রতীকী ছবি

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট: প্রতীকী ছবি

নরসিংদী শহরের চৌয়ালা এলাকায় রেজাউল করিম নামে এক টেক্সটাইল মিল শ্রমিক বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে আহত হন। পরে তাকে স্থানীয় নরসিংদী সদর হাসপাতালে নেওয়া হলেও যথাসময়ে চিকিৎসা সেবা না দেওয়ায় তার মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শহরের চৌয়ালা এলাকার জাবেদ টেক্সটাইলে এ বিদ্যুস্পৃষ্টের ঘটনা ঘটে।

জাবেদ টেক্সটাইল মিলের শ্রমিকদের অভিযোগ, রেজাউল বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। কিন্তু হাসপাতালের চিকিৎসক মাহামুদুল কবির বাশার যথাসময়ে চিকিৎসা না দিয়ে রোগীক ফেলে রাখে। বেশকিছু সময় পার হওয়ার পর অবশেষে তার মৃত্যু হয়।

এ ঘটনায় চৌয়ালার জাবেদ টেক্সটাইল মিলের প্রায় দেড়শতাধিক শ্রমিক একত্র হয়ে ঘণ্টাব্যাপী বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এ সময় চিকিৎসকের অবহেলার অভিযোগ তুলে বিভিন্ন স্লোগান দেন শ্রমিকরা।

মৃত টেক্সটাইল মিল শ্রমিক রেজাউল করিম শেরপুর উপজেলার নকলা উপজেলার পাঠাঘাটা গ্রামের জহির উদ্দিনের ছেলে। তিনি নরসিংদীতে ভাড়া বাসা নিয়ে জাবেদ টেক্সটাইলে অপারেটর পদে চাকরি করতেন।

ঘটনার বিষয়ে হাসপাতালে গিয়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক মাহামুদুল কবির বাশারকে পাওয়া যায়নি। পরে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সৈয়দ আমিরুল হক শামিমকেও কর্তব্যস্থলে না পেয়ে মোবাইলে কল করা হলে তিনি মিটিংয়ে আছেন বলে রেখে দেন।

সিভিল সার্জন ডা. মো. নুরুল ইসলামকে মোবাইলে কল দিয়ে জানতে চাইলে তিনি হাসপাতালের আরএমও এর সঙ্গে কথা বলতে বলেন।

নরসিংদী মডেল থানার ওসি মো. সওগাতুল ইসলাম জানান, শ্রমিকের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ