মোবাইলে কথা বলা নিয়ে ঝগড়া, বিয়ের ২ মাসেই লাশ হলেন স্ত্রী

ঢাকা, রোববার   ০৫ ডিসেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ২১ ১৪২৮,   ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

মোবাইলে কথা বলা নিয়ে ঝগড়া, বিয়ের ২ মাসেই লাশ হলেন স্ত্রী

বগুড়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৩ ১৬ অক্টোবর ২০২১   আপডেট: ২০:১৮ ১৬ অক্টোবর ২০২১

গ্রেফতারকৃত আলিফ হাসান

গ্রেফতারকৃত আলিফ হাসান

বগুড়ার ধুনটে রেহেনা খাতুন নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগে তার স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার বিকেলে ঐ উপজেলার রাঙ্গামাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রেফতারকৃত আলিফ হাসান ঐ গ্রামের মঞ্জুর হকের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত। শনিবার বিকেলে তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, দুই মাস আগে আলিফের সঙ্গে পারিবারিকভাবে রেহেনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর রেহেনা অন্য কারো সঙ্গে মোবাইলে কথা বলা না থামানোয় স্ত্রীর ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন তিনি। এছাড়া প্রায় রাতেই মাদকাসক্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরে স্ত্রীকে নির্যাতন করতেন আলিফ। বৃহস্পতিবার রাতে পরকীয়া ও মাদক সেবন নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে আলিফ তার স্ত্রীকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেন। এরপর নিজেকে বাঁচাতে আত্মহত্যা বলে প্রচার করেন। পরে শুক্রবার সকালে গোপনে লাশ দাফনের চেষ্টা করেন।

এদিকে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল থেকে রেহেনার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় শনিবার সকালে মামলা করেছেন নিহত রেহেনার বাবা রেজাউল করিম।

ধুনট থানার ওসি (তদন্ত) জাহিদুল ইসলাম জানান, গৃহবধূ রেহেনার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আলিফ হাসান স্ত্রীকে মারধর ও শ্বাসরোধে হত্যার বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর