ফোন পেয়ে বাড়ি ছাড়লেন অটোচালক, ৩০ মিনিট পর হলেন গলাকাটা লাশ

ঢাকা, মঙ্গলবার   ৩০ নভেম্বর ২০২১,   অগ্রহায়ণ ১৭ ১৪২৮,   ২৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

ফোন পেয়ে বাড়ি ছাড়লেন অটোচালক, ৩০ মিনিট পর হলেন গলাকাটা লাশ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১১:৪১ ১৬ অক্টোবর ২০২১  

ঘটনাস্থলে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা

ঘটনাস্থলে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা

নারায়ণগঞ্জে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে সুজন ফকির নামে ৪২ বছর বয়সী এক অটোচালককে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

শনিবার সকাল ৮টার দিকে সদর উপজেলার ফতুল্লার মুসলিমনগর নয়াবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুজন নাটোরের ভুলুদাসপুর থানার রামাগাড়ি এলাকার আমজাদ হোসেন টগরের ছেলে। তিনি ফতুল্লার নবীনগর এলাকায় শাহ আলমের বাসায় ভাড়ায় স্ত্রী সন্তান নিয়ে থাকতেন।

নিহতের স্ত্রী মর্জিনা বেগম বলেন, স্বামী-স্ত্রী ও এক ছেলে, এক মেয়ে নিয়ে আমাদের পরিবার। স্বামীর উপার্জনে আমাদের সংসার চলে। বিসিক রহনা নামে একটি গার্মেন্টসে কাজ করতেন সুজন। এর মধ্যে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাকে অপারেশনের মাধ্যমে চিকিৎসা করিয়ে সুস্থ করা হয়েছে। এজন্য কয়েকদিন আগে গার্মেন্টসের কাজ ছেড়ে দিয়ে ভাড়ায় অটোরিকশা চালানো শুরু করেন।

তিনি আরো বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মোবাইল ফোনে কল করে সুজনকে বাসা থেকে ডেকে নেন অজ্ঞাত লোকজন। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে সকাল ৮টায় খবর পাই। আমি হত্যাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও সর্বোচ্চ শাস্তি চাই।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান বলেন, পরিকল্পিতভাবে সুজন ফকিরকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। হত্যাকারীদের শনাক্ত করা হয়েছে। তাদের খুঁজে দ্রুত গ্রেফতার করার চেষ্টা করছি। লাশটি শহরের ভিক্টোরিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর