খুঁজে খুঁজে ক্লান্ত মা, ৭ দিনেও মেলেনি মেয়ে-নাতির সন্ধান

ঢাকা, শুক্রবার   ২২ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৭ ১৪২৮,   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

খুঁজে খুঁজে ক্লান্ত মা, ৭ দিনেও মেলেনি মেয়ে-নাতির সন্ধান

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:০৪ ১৩ অক্টোবর ২০২১  

নিখোঁজ খাদিজা বেগম ও তার ছেলে মিজান

নিখোঁজ খাদিজা বেগম ও তার ছেলে মিজান

বরিশাল নগরীর স্বামীর বাসা থেকে রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ হয়ে গেছে আমার মেয়ে খাদিজা বেগম ও নাতি মিজান। গত সাতদিন ধরে বিভিন্ন খুঁজে খুঁজে ক্লান্ত হয়ে পড়েছি। কোথাও তাদের সন্ধান পাচ্ছি না।

এভাবেই কান্নাজড়িত কণ্ঠে নিজের মেয়ে ও নাতির হারিয়ে যাওয়ার কথা জানালেন শিউলি বেগম।

নিখোঁজ খাদিজা বেগম বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার মাধবপাশা ইউনিয়নের শ্রীনগর বাদলা গ্রামের দুলাল হোসেন খলিফার মেয়ে। ৮ বছর আগে বরিশাল নগরীর আব্দুল মজিদ হাওলাদারের ছেলে সুমন হাওলাদারের সঙ্গে বিয়ে হয় তার। বিয়ের এক বছরের মাথায় সুমন-খাদিজা দম্পতির ঘরে জন্ম হয় ছেলে মিজানের। ৯ মাস আগে স্ত্রী-সন্তানকে রেখে দুবাই চলে যান সুমন হাওলাদার।

খাদিজার মা শিউলি বেগম বলেন, গত ৭ অক্টোবর বিকেলে শ্বশুর বাড়ি থেকে হারিয়ে যায় আমার মেয়ে ও নাতি। ঐ ঘটনায় বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি জিডিও করেছি। পুলিশের পাশাপাশি নিজেও খুঁজে খুঁজে ক্লান্ত হয়ে পড়েছি।

তিনি আরো বলেন, বিয়ের পর থেকেই আমার মেয়েকে তার শাশুড়ি, ননদ, ভাসুর মিলে নির্যাতন করছিল। এমনকি সুমন হাওলাদার বিদেশ যাওয়ার আগে খাদিজাকে বালিশচাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টাও করেছে তারা। নিখোঁজের পর আমার মেয়ের কথা জানতে চাইলা তারা উল্টো আমাকে অপমান করে তাড়িয়ে দেয়। তারা খাদিজা ও তার ছেলেকে খোঁজার কোনো চেষ্টাই করেনি। আমরা পুলিশকে আমার মেয়ে ও নাতির নিখোঁজ হওয়ার পেছনে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজনের হাত থাকার বিষয়ে জানিয়েছি।

বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা সূত্রে জানা গেছে, জিডির সূত্র ধরে খাদিজা বেগম ও তার ছেলে মিজানের খোঁজ চলছে। সব ধরনের তথ্য পর্যালোচনা করা হচ্ছে। এ ঘটনার পেছনে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর