প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রকে দিয়ে ইট ভাঙানোর ভিডিও ভাইরাল

ঢাকা, বুধবার   ২০ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৫ ১৪২৮,   ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রকে দিয়ে ইট ভাঙানোর ভিডিও ভাইরাল

শেরপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১০:১৭ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

হাতুড়ি হাতে স্কুলছাত্র

হাতুড়ি হাতে স্কুলছাত্র

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক স্কুলছাত্রকে দিয়ে ইট ভাঙানোর ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়েছে।

উপজেলার কাংশা ইউনিয়নের পশ্চিম বাকাকুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। ওই শিক্ষার্থী একই বিদ্যালয়ে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়ে।

জানা গেছে, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের অধীনে প্রায় পাঁচ লাখ টাকা ব্যয়ে পশ্চিম বাকাকুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন উন্নয়নের কাজ করা হয়। তবে ওই প্রকল্পে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য টয়লেটের কোনো ব্যবস্থা ছিল না।

এদিকে, সম্প্রতি বিদ্যালয়ের বার্ষিক বরাদ্দের ৪০ হাজার টাকায় টয়লেট নির্মাণের কাজ শুরু করেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক। টয়লেটের ঢালাই কাজের জন্য ইটের খোয়া প্রয়োজন হয়। এ কারণে সে কাজে ওই বিদ্যালয়ের কয়েকজন ছাত্রকে ব্যবহার করেন প্রধান শিক্ষক। এক ছাত্রের হাতুড়ি দিয়ে ইট ভাঙার ভিডিও ধারণ করেন স্থানীয় এক যুবক। পরে তা ছেড়ে দেন ফেসবুকে। যা মুহূর্তেই ভাইরাল হয় জেলাজুড়ে।

বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শহিদুল ইসলাম শহীদ জানান, এ ঘটনাটি দুঃখজনক। এরই মধ্যে প্রধান শিক্ষক দোষ স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন।

পশ্চিম বাকাকুড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আশিক জানান, এ বিষয়টি একটি চক্রান্ত। ঘটনার দিন দায়িত্বপ্রাপ্ত রাজমিস্ত্রি ও শ্রমিকরা দোকানে চা পান করতে গিয়েছিলেন। পরে ওই শিক্ষার্থী শখে হাতুড়ি দিয়ে কয়েকটি ইট ভেঙেছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মো. নূরুন্নবী বলেন, শিক্ষার্থীর ইট ভাঙার ভিডিও দেখে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলাম। এ ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় প্রধান শিক্ষককে শোকজ করা হয়েছে। শোকজের জবাব সন্তোষজনক না হলে প্রধান শিক্ষক আশিকের বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর