বাসর ঘরের পরিবর্তে বরের ঠাঁই হলো কারাগারে 

ঢাকা, শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১ ১৪২৮,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বাসর ঘরের পরিবর্তে বরের ঠাঁই হলো কারাগারে 

নালিতাবাড়ী (শেরপুর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০২:৪৭ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১   আপডেট: ১০:৫৪ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১

বাল্যবিয়ে পণ্ড করে বরকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত

বাল্যবিয়ে পণ্ড করে বরকে তিন মাসের কারাদণ্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত

শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে বাল্যবিয়ে করতে গিয়ে মোশাররফ হোসেন নামে দুই সন্তানের জনকের ঠাঁই হয়েছে কারাগারে। প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ১৩ বছর বয়সী আপন চাচাতো বোনকে বিয়ে করতে যাচ্ছিলেন তিনি।

শনিবার রাতে তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালত তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে।দণ্ডপ্রাপ্ত মোশাররফ হোসেন ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার ধরাবুন্নি গ্রামের বাসিন্দা।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ছয় মাস আগে প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে মোশারফ হোসেনের বিচ্ছেদ হয়। এরপর আপন চাচাতো বোনকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন তিনি। ওই কিশোরী ঢাকায় তার মায়ের কাছে থাকত।বিয়ের জন্য শনিবার তাকে শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার রূপনারায়ণকুড়া ইউনিয়নের আয়নাতলী গ্রামে নানাবাড়িতে নেয়া হয়। সেখানে বিয়ের যাবতীয় আয়োজন চলছিলে। 

ওই সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিয়েবাড়িতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে নালিতাবাড়ী উপজেলা প্রশাসন। পরে বাল্যবিয়ের আয়োজন বন্ধ করে বরকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

নালিতাবাড়ীর ইউএনও ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেলেনা পারভীন বলেন, বাল্যবিয়ে বন্ধে এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএ/এআর/জেডআর/এমআর