ঢাকা থেকে কিশোরীকে এনে নিজ বাসায় দেহ ব্যবসা চালাচ্ছিলেন ফাতেমা

ঢাকা, সোমবার   ১৮ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৩ ১৪২৮,   ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ঢাকা থেকে কিশোরীকে এনে নিজ বাসায় দেহ ব্যবসা চালাচ্ছিলেন ফাতেমা

নেত্রকোনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০১:১১ ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১  

আটককৃত ফাতেমা খাতুন

আটককৃত ফাতেমা খাতুন

ঢাকা থেকে কাজের কথা বলে এক কিশোরীকে নিয়ে নেত্রকোনার দুর্গাপুরে আটকে রেখে দেহ ব্যবসা করানোর অভিযোগে ফাতেমা খাতুন নামে এক নারীকে আটক করেছে পুলিশ। ওই সময় ভুক্তভোগী কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে।

আটককৃত ফাতেমা খাতুন ওই উপজেলার র মোক্তারপাড়ার আবুল কাশেমের স্ত্রী। বৃহস্পতিবার রাতে তাকে আটকের পর শুক্রবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মাদারীপুরের এক কিশোরী মামার বাড়ি থেকে রাগ করে ঢাকায় গার্মেন্টস শ্রমিক বোনের বাসায় যায়। তার বোন তাকে কাজের জন্য ফাতেমার কাছে দেন। ফাতেমা ওই কিশোরীকে নিজ গ্রামে নিয়ে এসে কাজ না করিয়ে নিজের বাসায় আটকে রেখে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করে। এমনকি এতে রাজি না হলে ওই কিশোরীর ওপর নির্যাতনও চালায় সে। বৃহস্পতিবার বিকেলে কৌশলে ওই কিশোরী পালিয়ে গিয়ে পার্শ্ববর্তী আশ্রয়ণ প্রকল্পে গা-ঢাকা দেয়। খোঁজ পেয়ে তাকে সেখান থেকে বাসায় নিয়ে আসতে যান ফাতেমা। পরে  আশ্রয়ণ প্রকল্পের বাসিন্দারা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ওই কিশোরীকে উদ্ধার ও ফাতেমাকে আটক করে।

দুর্গাপুর থানার ওসি শাহ নুর এ আলম জানান, ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে তার বোনের কাছে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। আটককৃত ফাতেমা খাতুনের বিরুদ্ধে আগেও নিজ বাসায় অনৈতিক কার্যকলাপ চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ কাজে জড়িত বাকিরা পালিয়ে গেছে। তাদের ধরতে অভিযান চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর