চলন্ত ট্রেনেই জন্ম নিল ফুটফুটে ছেলে সন্তান

ঢাকা, রোববার   ১৭ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ৩ ১৪২৮,   ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চলন্ত ট্রেনেই জন্ম নিল ফুটফুটে ছেলে সন্তান

রাজশাহী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫১ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১  

ট্রেনে জন্ম নিল ফুটফুটে ছেলে সন্তান

ট্রেনে জন্ম নিল ফুটফুটে ছেলে সন্তান

চলন্ত ট্রেনেই এক প্রসূতি নারী সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। সন্তান জন্মদানকারী ওই প্রসূতি মা ও তার নবজাতক ছেলে সন্তানকে রেল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতায় রাজশাহী মেডেকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯টার দিকে নাটোরের আব্দুলপুর স্টেশনের কাছে ওই প্রসূতি সন্তান প্রসব করেন। ওই প্রসূতির নাম সাবিনা ইয়াসমিন। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার উদ্দেশ্যে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা সাগরদাড়ি ট্রেনে তিনি রওনা করেছিলেন।

রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার আব্দুল করিম জানান, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ওই প্রসূতি রাত ৮টার দিকে ভেড়ামারা স্টেশনে সাগরদাঁড়ি ট্রেনের ‘ছ’ বগিতে ওঠেন। এরপর পরই তার প্রসব বেদনা শুরু হলে তাৎক্ষণিক বিষয়টি ট্রেনের কন্ডাক্টিং গার্ড রুবায়েত হাসান জানতে পারেন।

তিনি বিষয়টি গার্ড ইনচার্জ আজিমুল হোসেনকে জানালে ট্রেনের মাইকে সন্তান প্রসবের ব্যাপারে একজন চিকিৎসকের সাহায্য কামনা করা হয়। মাইকে ঘোষণা শুনে একজন নারী চিকিৎসক নির্ধারিত কামরায় গিয়ে বাচ্চা প্রসবের কাজটি সম্পন্ন করেন।

ঘটনাটি পশ্চিমাঞ্চল রেলের জেনারেল ম্যানেজার মিহির কান্তি গুহ জানতে পেরে তাৎক্ষণিকভাবে রেলের অ্যাম্বুলেন্স এর ব্যবস্থা করেন এবং রোগীকে  জরুরি ভিত্তিতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

ট্রেনে সন্তান প্রসবের পর হাসপাতালে নেয়া হয় প্রসূতিকেরাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, রোগীকে ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। বাচ্চা এবং প্রসূতির অবস্থা ভালো। কোনো ঝুঁকির কারণ নেই।

এদিকে, সাগরদাঁড়ি ট্রেনে বাচ্চা প্রসব করানোর ব্যাপারে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেয়ায় ট্রেনে দায়িত্ব পালনকারী সংশ্লিষ্ট কর্মচারীদের পুরস্কৃত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। এ ব্যাপারে শনিবার বিকেল ৩টায় রাজশাহী রেল ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের জেনারেল ম্যানেজার মিহির কান্তি গুহ। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম