হত্যা করে ছাড়েন দেশ, ১৭ বছর পর ফিরেই খেলেন ধরা

ঢাকা, শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১,   কার্তিক ১ ১৪২৮,   ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

হত্যা করে ছাড়েন দেশ, ১৭ বছর পর ফিরেই খেলেন ধরা

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৪৭ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১  

ধামরাই থানা

ধামরাই থানা

১৭ বছর আগে একজনকে হত্যা করে সৌদি আরবে পাড়ি দিয়েছিলেন ঢাকার ধামরাইয়ের ফিরোজ আলম। কিছুদিন আগে দেশে ফেরেন তিনি। কিন্তু পুরনো সেই মামলায় বুধবার রাতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ফিরোজকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। ফিরোজ ধামরাই উপজেলার শরিফবাগ গ্রামের হাবিবুর রহমান হাবির ছেলে। নিহতের নাম তৈবুর রহমান। তিনি একই গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

জানা গেছে, ২০০৪ সালের সেপ্টেম্বরে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে ধামরাই পৌরসভার সিমা সিনেমা হলের সামনে তৈবুর রহমানকে ছুরিকাঘাত করেন ফিরোজ। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলা করেন নিহতের বাবা। এ মামলায় কিছুদিন পালিয়ে থেকে সৌদি আরবে চলে যান ফিরোজ। এরপর তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

সৌদি আরবে ১৭ বছর থাকার পর কিছুদিন আগে দেশে আসেন ফিরোজ। বুধবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কালামপুর সাব রেজিস্ট্রি কার্যালয়ের পেছন থেকে তাকে গ্রেফতার করে ধামরাই থানা পুলিশ।

ধামরাই থানার ওসি আতিকুর রহমান বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে একটি হত্যা মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ফিরোজ আলমকে গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর