বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দুই মাস লাপাত্তা প্রেমিক, বাড়িতে হাজির প্রেমিকা

ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ১০ ১৪২৮,   ১৫ সফর ১৪৪৩

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দুই মাস লাপাত্তা প্রেমিক, বাড়িতে হাজির প্রেমিকা

দিনাজপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৮:২৭ ৪ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১৮:২৮ ৪ আগস্ট ২০২১

অনশনকারী প্রেমিকা ও পলাতক প্রেমিক ডাল্টন রায়

অনশনকারী প্রেমিকা ও পলাতক প্রেমিক ডাল্টন রায়

দিনাজপুর খানসামায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিক ডাল্টন রায়ের বাড়িতে চারদিন ধরে অনশন করছেন প্রেমিকা। এদিকে প্রেমিকা আসার খবরে বাড়ি ছেড়ে পালিয়েছেন প্রেমিক।

ওই উপজেলার গোয়ালডিহি ইউনিয়নের পূর্ব হাসিমপুরের বানিয়া পাড়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত প্রেমিক ডাল্টন রায় ওই গ্রামের জয়কান্ত রায়ের ছেলে। অনশনকারী প্রেমিকা একই উপজেলার মানিকগঞ্জ বাজার এলাকার বাসিন্দা। তিনি পাকেরহাট বিএম কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী।

বুধবার বিকেলে সরেজমিনে দেখা গেছে, ডাল্টন রায়ের ঘরের সামনে বারান্দায় বসে আছেন তার প্রেমিকা। তার চারপাশে বসে আছেন ডাল্টনের পরিবারের সদস্যরা।

ডাল্টন রায়ের প্রেমিকা জানান, মানিকগঞ্জ বাজারে তাদের পরিচয়। এর সূত্র ধরেই দুজনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপর তারা একসঙ্গে ঘোরাফেরা মোবাইলে ও মেসেঞ্জারে নিয়মিত কথা বলতেন। এমনকি ডাল্টন অসংখ্যবার বিয়র প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন। কিন্তু গত দুই মাস ধরে তাদের প্রেমের সম্পর্ক জানাজানি হলে লাপাত্তা হন ডাল্টন। দীর্ঘদিন যোগাযোগ না হওয়ায় তার বাড়িতে হাজির হয়েছেন প্রেমিকা।

তিনি আরো জানান, তারা কখনো শারীরিক সম্পর্কে জড়াননি। কিন্তু ডাল্টন বারবার বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রতারণা করেছে। এ কারণে তিনি প্রেমিকের বাড়িতে অনশন শুরু করেছেন। ডাল্টন বিয়ে না করা পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাবেন বলেও জানান তিনি।

ডাল্টন রায়ের বাবা জয়কান্ত রায় বলেন, আমার ছেলে প্রেমের বিষয়টি অস্বীকার করেছে। আমরা এলাকাবাসীর অনুরোধে মেয়েটিকে বাড়ির ভেতরে রেখেছি।

খানসামা থানার ওসি শেখ কামাল হোসেন বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর