চুয়াডাঙ্গায় শ্বশুরবাড়ির নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ, স্বামী আটক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৯ ১৪২৮,   ১৪ সফর ১৪৪৩

চুয়াডাঙ্গায় শ্বশুরবাড়ির নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যুর অভিযোগ, স্বামী আটক

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৫:২৫ ৪ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ১৫:২৬ ৪ আগস্ট ২০২১

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার হাজরাহাটি গ্রামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় স্বামী শিপন আলীকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ওই গৃহবধূর। 

নিহতের পরিবারের অভিযোগ শ্বশুরবাড়ির নির্যাতনে মৃত্যু হয়েছে নাজমা খাতুনের। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী শিপন আলীকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত নাজমা খাতুন হাজরাহাটি গ্রামের হাজীপাড়ার শিপন আলীর স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার রাতে নাজমা খাতুন অসুস্থ হয়ে পড়ে। অবস্থার অবনতি হলে মঙ্গলবার রাতে নাজমা খাতুনকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে পরিবারের সদস্যরা। পরে রাত ২টার দিকে তার মৃত্যু হয় তার।

নিহতের পরিবারের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে শিপন আলী তার স্ত্রী নাজমাকে নির্যাতন করতো। কয়েক দিন আগেও নাজমাকে বেধড়ক মারধর করে শিপন। গতকালও নাজমা নির্যাতন চালায় শ্বশুর বাড়ির লোকজন। এতেই তার মৃত্যু হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মাহবুবুর রহমান বলেন, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে উঠান থেকে পড়ে গেছে বলে নাজমা খাতুনকে ভর্তি করে তার স্বামী শিপন আলী। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন দেখতে পেয়ে সন্দেহ হলে বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়। পরে রাত ২টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ওসি আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান জানান, স্বামী শিপন আলীর নির্যাতন স্ত্রী নাজমা খাতুনের মৃত্যু হয়েছে। প্রথমে তারা বিষয়টি অস্বীকার করলেও পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে নাজমার শ্বশুরবাড়ির লোকজন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এরপর বুধবার সকালে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিপন আলীকে আটক করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস