এতিমখানায় মাংস খেয়ে বমি করতে করতে শিশুর মৃত্যু, অসুস্থ ১৭

ঢাকা, রোববার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ৫ ১৪২৮,   ১০ সফর ১৪৪৩

এতিমখানায় মাংস খেয়ে বমি করতে করতে শিশুর মৃত্যু, অসুস্থ ১৭

নোয়াখালী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০৩:৩২ ৩ আগস্ট ২০২১   আপডেট: ০৩:৩৪ ৩ আগস্ট ২০২১

হাসপাতালে ভর্তি ছাত্ররা

হাসপাতালে ভর্তি ছাত্ররা

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে একটি মাদরাসায় রাতের খাবার খেয়ে এক ছাত্রের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অসুস্থ হয়েছে আরো ১৭ ছাত্র।

সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের পূর্ব একলাশপুর গ্রামের মদিনাতুল উলুম ইসলামিয়া মাদরাসা কমপ্লেক্স ও এতিম খানায় এ ঘটনা ঘটে।

মৃত ৯ বছরের শিশুটির নাম নিশান নুর হাদী। সে একলাশপুর গ্রামের আনোয়ার মিয়ার ছেলে এতিম খানার নূরানী বিভাগের প্রথম জামাতের ছাত্র ছিল।

মদিনাতুল উলুম ইসলামিয়া মাদরাসা ও এতিম খানার সুপারিনটেনডেন্ট ইসমাইল হোসেন জানান, সোমবার দুপুরের দিকে মাদরাসায় মাংস রান্না করা হয়। রাতে সেই মাংস দিয়ে খাবার খেয়ে ২০ জন ছাত্র ঘুমাতে যায়। একপর্যায়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ১৮ জন ছাত্র বমি করতে থাকে। পরে তাদের নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে শিশু নিশান হাসপাতালে নেয়ার আগেই মারা যায়।

স্থানীয়রা জানায়, মাদরাসায় মোট শিক্ষার্থী ১২০ জন। প্রথম ধাপে ১৮ জন রাতের খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়লে আর কেউ খায়নি। মোট ৭০ জন ছাত্র খাবার খায়। রান্না করা মাংসে গন্ধ ছিল বলে জানিয়েছে অসুস্থ শিক্ষার্থীরা।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. সৈয়দ মহিউদ্দিন আব্দুল আজিম জানান, খাদ্যে বিষক্রিয়ার কারণে এমন ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। অসুস্থ শিক্ষার্থীরা চিকিৎসাধীন রয়েছে।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি কামরুজ্জামান সিকদার জানান, তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। খাবারের সঙ্গে কোনো বিষাক্ত পদার্থ মেশানো হয়েছে কিনা তদন্ত করতে বাকি খাবার উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর