স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় খবর দিলেন স্বামী

ঢাকা, শুক্রবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১,   আশ্বিন ২ ১৪২৮,   ০৮ সফর ১৪৪৩

স্ত্রীকে হত্যার পর থানায় খবর দিলেন স্বামী

শরীয়তপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ২০:০৫ ২৮ জুলাই ২০২১  

পালং মডেল থানা, শরীয়তপুর

পালং মডেল থানা, শরীয়তপুর

শরীয়তপুর পৌরসভার উত্তর পালং গ্রামে পারিবারিক কলহের জেরে ইট দিয়ে পিটিয়ে স্ত্রীকে হত্যা করেছেন স্বামী। এ ঘটনায় স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের নাম রাজিয়া সুলতানা মৌ। তিনি ফরিদপুরের বালিহাটি এলাকার আরিফ মুন্সির স্ত্রী ও দুই সন্তানের জননী। আটক আরিফ একই এলাকার চাঁন মিয়া মুন্সির ছেলে। তবে পালং গ্রামে তারা ভাড়া থাকতেন।

স্থানীয়রা জানায়, ১৪ বছর আগে রাজিয়ার সঙ্গে আরিফের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের ১২ বছর বয়সী আয়েশা আক্তার ঈশা ও আট বছরের ইয়াকুব মুন্সি সোহান নামে দুই সন্তান রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে তাদের পারিবারিক কলহ চলছিল।

এরই জেরে বুধবার ভোরে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে আরিফ-রাজিয়ার মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ইট দিয়ে স্ত্রীর মাথায় আঘাত করেন আরিফ। এতে ঘটনাস্থলেই রাজিয়া নিহত হন। এরপর আরিফ নিজেই থানায় গিয়ে পুলিশকে বিষয়টি জানান।

রাজিয়ার ভাই রাসেল হাওলাদার বলেন, আরিফ আমার বোনকে হত্যা করেছেন। ভাগনে-ভাগনিকে এতিম করেছেন। আমি আরিফের ফাঁসি চাই।

পালং মডেল থানার ওসি মো. আখতার হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতের স্বামীকে আটকের পর হত্যার কথা স্বীকার করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর