গার্মেন্টস খোলার বিষয়ে যা বললেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

ঢাকা, শুক্রবার   ৩০ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮,   ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

গার্মেন্টস খোলার বিষয়ে যা বললেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৩:৫০ ২২ জুলাই ২০২১  

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন; ফাইল ছবি

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন; ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসে সংক্রমণ পরিস্থিতি বিবেচনা করে গার্মেন্টস ও রফতানিমুখী শিল্পকারখানা খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। 

কঠোর লকডাউনের মধ্যে গার্মেন্টস ও রফতানিমুখী শিল্পকারখানা খোলা রাখতে এফবিসিসিআই ও বিজেএমই’ এর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার তিনি এ কথা জানান।

ফরহাদ হোসেন বলেন, গার্মেন্টস ও রফতানিমুখী কলকারখানা বিষয়ে আপাতত কোনো সিদ্ধান্ত নাই। অবস্থা পরিবর্তন হলে চিন্তাভাবনা করা যাবে। তবে সেটা এ মাসের ভেতরে না।

রফতানিমুখী গার্মেন্টস বন্ধ থাকলে অর্থনীতিতে বিরূপ প্রভাব পড়বে এমন যুক্তি দেখিয়ে বিজিএমএই প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ সচিব বরাবর চিঠি দিয়েছিল ঈদুল আজহার আগে। পরে একই যুক্তিতে শিল্পকারখানা খুলে দেওয়ার দাবি জানায় দেশের ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)।

ঈদের আগে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের সঙ্গে বৈঠক করেন বস্ত্র ও তৈরি পোশাক খাতের সংগঠনগুলোর নেতারা। বৈঠকে উদ্যোক্তারা বলেন, টানা ১৪ দিন কারখানা বন্ধ থাকলে রফতানি আদেশ হারাতে হবে। শ্রমিকদের বেতন-ভাতা নিয়ে সংকট তৈরি হতে পারে। 

রফতানিমুখী গার্মেন্টসগুলোর উৎপাদন বন্ধ থাকলে ইউরোপ, আমেরিকার ক্রেতারা বাংলাদেশের অর্ডার বাতিল করে দিতে পারেন বলে আশঙ্কা করেন তারা। তারা বলছেন, অনেক কারখানার মালিক দেউলিয়া হয়ে পড়বেন। কর্মসংস্থান এবং অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়বে।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ