এক টুকরো মাংসের জন্য...

ঢাকা, রোববার   ২৫ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১০ ১৪২৮,   ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

এক টুকরো মাংসের জন্য...

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৬:০২ ২১ জুলাই ২০২১  

কোরবানির মাংসের জন্য দরিদ্রদের অপেক্ষা

কোরবানির মাংসের জন্য দরিদ্রদের অপেক্ষা

কাটাকাটি শেষ হলেই খুলে যাবে গেট, ভেতরে গরু জবাই থেকে শুরু করে আনুসাঙ্গিক কাজের ব্যস্ততা। বাইরে অপেক্ষমাণদের এক টুকরো করে মাংস দেওয়া হবে। এই এক টুকরো মাংসের জন্য গ্রামসহ দূর-দূরন্ত থেকে শহরে এসেছে বিভিন্ন বয়সী মানুষ।

দৃশ্যটি বরগুনার পাথরঘাটা পৌরসভার। পাথরঘাটার সাবেক এমপি গোলাম সবুর টুলুর বাসভবনের গেটে কোরবানির মাংসের জন্য দেখা গেছে বিভিন্ন বয়সীদের দীর্ঘ লাইন। শুধু এখানেই নয়, প্লাস্টিকের ব্যাগ হাতে শহরের অনেক বিত্তবানদের বাড়ির সামনেই দেখা গেছে হতদরিদ্র এসব মানুষের ভিড়।

সাবেক এমপি গোলাম সবুর টুলুর বাসভবনের সামনে অপেক্ষমান আব্দুর রহিম, শাহজাহান বলেন, আমরা গরিব মানুষ। কোরবানি তো দূরের কথা, এক কেজি মাংস কেনারও সামর্থ্য নেই। এ জন্য বড়লোকদের বাড়িতে আসি। তারা মাংস দিলে তা নিয়ে স্ত্রী-সন্তানকে এক বেলা খাওয়াব।

পাথরঘাটার সাবেক এমপি গোলাম সবুর টুলুর বাসভবনের গেটে কোরবানির মাংসের জন্য দীর্ঘ লাইন

এ বাসভবনের দায়িত্বে থাকা শফিকুল ইসলাম সোহেল বলেন, প্রতি বছরের মতো এ বছরও কোরবানির দিন অসহায়দের মাঝে মাংস বিতরণ করা হবে। এরই মধ্যে দুটি গরু জবাই করা হয়েছে। আশা করছি, এবার ৭০০’র বেশি মানুষ মাংস পাবে।

পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা প্রভাষক মনিরুজ্জামান বলেন, আমরা গরু জবাই করে আনুষঙ্গিক কাজ করছি। দুপুরের আগেই নিয়ম অনুযায়ী গরিবদের মাঝে মাংস বিতরণ করব।

পাথরঘাটা পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম কাঁকন বলেন, পরিবেশ যাতে দূষিত না হয় সেজন্য আমি ব্যক্তিগতভাবে এরই মধ্যে যেসব জায়গায় গরু জবাই দেওয়া হয়েছে ওইসব জায়গায় ব্লিচিং পাউডার ছিটানো শুরু করেছি। এছাড়া যারা কোরবানি দিয়েছেন তাদের গরু জবাই করার জায়গা ধুয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর