বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে গেলেন চতুর কাজি

ঢাকা, বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১,   শ্রাবণ ১৩ ১৪২৮,   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে গেলেন চতুর কাজি

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৯:৪৭ ১৯ জুলাই ২০২১  

বাগেরহাটের শরণখোলায় সোমবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের হস্তক্ষেপে একটি বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে

বাগেরহাটের শরণখোলায় সোমবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের হস্তক্ষেপে একটি বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে

বাগেরহাটের শরণখোলায় সোমবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের হস্তক্ষেপে একটি বাল্যবিয়ে বন্ধ হয়েছে। বর ও কনের বাবাকে অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে। তবে ,  অভিযানের খবর শুনে বিয়ের আসর থেকে পালিয়ে গেছেন চতুর কাজি।

উপজেলা নির্বাহী অফিস সূত্র জানায়,  সোমবার দুপুরে উপজেলার গোলবুনিয়া গ্রামের সেলিম গাজীর কিশোরী কন্যা দোলনের বিয়ের আয়োজন  করা হয়েছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী মেজিস্ট্রেট খাতুনে জান্নাতের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত গোলবুনিয়া গ্রামের ওই বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় সুকৌশলে কাজি পালিয়ে যেতে সক্ষম হন।

পরে ,নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালত বসিয়ে উপজেলার বকুলতলা গ্রামের আ. গণি গাজীর ছেলে বর আনোয়ার হোসেন গাজীকে তিন হাজার টাকা অর্থদণ্ড এবং কনের বাবা সেলিম গাজীকে দুই হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন । এছাড়া ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দেবে না মর্মে সেলিম গাজীর কাছ থেকে  একটি মুচলেকা আদায় করা হয়।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খাতুনে জান্নাত জানান, শরণখোলায় বাল্যবিয়ে বন্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ