দাঙ্গা-হাঙ্গামায় পটু রাজশাহী বিএনপি

ঢাকা, বুধবার   ০৪ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ২০ ১৪২৮,   ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

দাঙ্গা-হাঙ্গামায় পটু রাজশাহী বিএনপি

রাজশাহী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ১৭:১৯ ১৯ জুলাই ২০২১   আপডেট: ১৭:৪৪ ১৯ জুলাই ২০২১

সংঘর্ষ (প্রতীকী ছবি)

সংঘর্ষ (প্রতীকী ছবি)

সারাদেশে বিএনপির নেতাকর্মীদের একের পর এক বিতর্কমূলক কর্মকাণ্ডে জড়ানোর খবর নতুন নয়। আর সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন রাজশাহী বিএনপির নেতাকর্মীরাও। কখনো নিজেদের মধ্যে বিভেদ, কখনো চাঁদাবাজি, কখনো আবার অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মানুষের ওপর ঝাঁপিয়ে পড়ার অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে।

সম্প্রতি নগরীর পাঠানপাড়াস্থ মাদরাসা ময়দানের পাশে অনুষ্ঠিত বিভাগীয় মহাসমাবেশেও বিবাদে জড়ান দলটির নেতাকর্মীরা। সমাবেশের শুরু ও শেষে ঘটে হাতাহাতির ঘটনা। মূলত মঞ্চের সামনে বসা ও কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে ছবি তোলা নিয়ে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান দলের কয়েকজন কর্মী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মী বলেন, সমাবেশ শুরুর পরপরই সমাবেশস্থলে মঞ্চের সামনে নারীদের জন্য নির্ধারিত স্থানে বসা নিয়ে সিরাজগঞ্জের কর্মীদের সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে উত্তেজনা বাড়ে। ওই সময় মঞ্চে উপস্থিত জ্যেষ্ঠ নেতারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন।

অন্যদিকে, ৩০ জুন দুপুরে নগরীর দাসপুকুর এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা জয়নাল আবেদীনকে কুপিয়ে হত্যা করেন সন্ত্রাসীরা। ওই সময় আহত হন আরো অন্তত ১০ জন।

স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার দিন হঠাৎ জয়নাল আবেদীনকে কোপাতে শুরু করেন বিএনপির অস্ত্রধারী কয়েকজন সন্ত্রাসী। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায়, মাত্র তিন মিনিটের মধ্যেই জয়নাল আবেদীনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করা হয়। কিন্তু ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছানোর আগেই পালিয়ে যান সন্ত্রাসীরা।

এদিকে, এ বিষয়ে কথা বলতে দলটির জ্যেষ্ঠ কয়েকজন নেতার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও মুখ খুলতে রাজি হননি তারা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম/এইচএন