নিখোঁজের ৫ ঘণ্টা পর ডোবায় মিলল শিশুর লাশ, গ্রেফতার ১

ঢাকা, সোমবার   ০২ আগস্ট ২০২১,   শ্রাবণ ১৮ ১৪২৮,   ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

নিখোঁজের ৫ ঘণ্টা পর ডোবায় মিলল শিশুর লাশ, গ্রেফতার ১

ফেনী প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

 প্রকাশিত: ০০:১৭ ১৯ জুন ২০২১  

শিশ মরদেহ: ফাইল ফটো

শিশ মরদেহ: ফাইল ফটো

ফেনীর পরশুরামে নিখোঁজের ৫ ঘণ্টা পর প্রতিবেশীর ডোবা থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে। তার নাম ইকবাল হোসেন। তিনি পরশুরাম উপজেলা সদরের কাঁচা বাজার এলাকার বাসিন্দা ও স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বরখাস্তকৃত শিক্ষক। 

তিনি বাড়িতে একাই বসবাস করতেন। শুক্রবার বিকেলে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে সকাল ৭টার দিকে পরশুরাম কাঁচা বাজারের পাশের বাসিন্দা মো. ইউছুফের সাত বছরের ছেলে মো. ইয়াছিন নিখোঁজ হয়। দুপুর ১২টায় প্রতিবেশী ইকবাল হোসেনের ঘরের পাশের ডোবা থেকে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ওই শিশুর বাবা বাদী হয়ে ইকবাল হোসেনকে আসামি করে পরশুরাম মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। 

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ইউছুফ ও ইকবাল হোসেন দুইজনই প্রতিবেশী। পাশাপাশি বাড়িতে বসবাস করেন। ইউছুফের ছেলেটি মাঝে মাঝে ইকবালের বাড়িতে যায়। এ নিয়ে ইকবাল এর আগে একাধিকবার শিশু ইয়াছিনকে বকাঝকা করেন, চড় থাপ্পড়ও মারেন। ছোট ছেলেটা তারপরও সুযোগ পেলেই ইকবালের গাছের আম পড়লে কুড়াতে যায়। শিশুর পরিবারও শিশুটিকে ওই বাড়িতে যেতে অনেকবার নিষেধ করে। প্রতিবেশী ইকবাল হোসেন কয়েক দিন আগে ওই শিশুর বাবাকে ডেকে শিশু যেন তার (ইকবাল) বাড়িতে না যায় সে জন্য সতর্ক করেন এবং এরপর শিশুটি তার বাড়ি গিয়ে কিছু ধরার চেষ্টা করলে মেরে লাশও গুম করা হবে বলে হুমকি দেন।

শুক্রবার সকাল ৭টার দিকে শিশু ইয়াছিন পরিবারের অন্যদের চোখের নজর এড়িয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে যায়। দীর্ঘক্ষণ ঘরে ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজি শুরু হয়। কোথাও না পেয়ে বাজারে মাইকে প্রচার শুরু করে। দুপুর ১২টার দিকে ওই শিশু ইউছুফের সেন্ডেল পাওয়া যায় প্রতিবেশী ইকবাল হোসেনের ঘরের পাশে। তাতেই স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হয়। তারা ইকবালের ঘরের পাশেই ডোবার পানি ঘোলা দেখে কয়েকজন ওই ডোবায় নেমে পড়ে। খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে ডোবার মধ্য থেকে শিশুর মরদেহ উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে বিকেলে পরশুরাম থানা পুলিশ ওই স্থানে গিয়ে শিশুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। 

পরশুরাম মডেল থানার ওসি মো. খালেদ হোসেন প্রতিবেশীর ডোবা থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার ও ইকবাল হোসেন নামে একজনকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ